Home / এক্সক্লুসিভ সংবাদ / মায়ের অভাবে যেন প্রেমিক কষ্ট না পায়, তাই প্রেমিকের বাবাকে বিয়ে করলেন তরুণী!

মায়ের অভাবে যেন প্রেমিক কষ্ট না পায়, তাই প্রেমিকের বাবাকে বিয়ে করলেন তরুণী!

কিছু দিন আগে মারা গিয়েছেন প্রেমিকের মা। তার পর থেকে মনোকষ্টে ছিলেন তরুণ।

তিনি যেন মায়ের অভাবে কষ্ট না পান তার জন্য প্রেমিকের বাবাকেই বিয়ে করলেন তরুণী। লন্ডনের এই ঘটনা ভাইরাল হয়েছে নেটমাধ্যমে।

এক টিকটক ব্যবহারকারী জানিয়েছেন, শুধুমাত্র প্রেমিকের মুখে হাসি আনতেই এই কাজ করেছেন তিনি। একটি ভিডিয়ো বার্তায় তিনি বলেন,কয়েক দিন আগে আমার প্রেমিকের মা মারা যান।

আমি চাইনি ও দুঃখে থাকুক। তাই আমি ওর বাবাকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিই। তার ফলে আমার প্রেমিক আবার মা পেল। মায়ের অভাব বোধ হবে না ওর।’’

অনেকে যেমন তাঁর এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন, তেমনই অনেকে অবাক হয়েছেন।

ঢালিউডের আলোচিত নায়িকা অপু বিশ্বাস।একসময় তার অভিনয় দক্ষতায় দর্শকদের হৃদয় কেড়েছেন।
তবে বর্তমানে তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে চর্চার শেষ নেই।শাকিব খানের সঙ্গে ডিভোর্স হওয়ার পর

থেকে চলছে দ্বিতীয় বিয়ের গুঞ্জন।যে কোনো ছবি, ভিডিও শেয়ার করা মাত্রই একটাই প্রশ্নে ভর
যাচ্ছে অভিনেত্রীর সোশ‍্যাল মিডিয়া হ‍্যান্ডেলের কমেন্ট বক্স।সেই সঙ্গে ট্রোল,কটুক্তি, সমালোচনা তো রয়েছেই।

এদিকে,গত ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে পাবনায় ‘প্রেম প্রীতির বন্ধন’ নামের নতুন একটি সিনেমার শেষ ভাগের দৃশ্যধারণে অংশ দিয়েছেন অপু বিশ্বাস।

আর তার সঙ্গে আছেন এই ছবির নায়ক জয় চৌধুরী।শুটিং সেঁটের একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে নেটের দুনিয়ায়। এতে অনেকটা সমালোচনার মুখে পড়েছেন অপু বিশ্বাস।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে অপু-জয় চৌধুরী শুটিংয়ের ফাঁকে মনিটরে সামনে টুলে বসে, শুটিংয়ের ফুটেজ দেখছেন।এতে অপু বিশ্বাস সাদা টিশার্ট এবং লাল রঙের হাফপ্যান্ট পরে আছেন।

ছবিটি ফেসবুকে প্রকাশের পর থেকেই অপু বিশ্বাসের ফিটনেস নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনেরা।অনেকে আবার কমেন্ট বক্সে সমালোচনা করছে!

আরো পড়ুনঃ
অবিকল মানুষের মত ফলের দোকানে ফল বিক্রি করছে ছোট্ট বাঁদর, ভিডিও ভাইরাল,ভিডিটি নিচে দেওয়া আছে,
সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন একটি জায়গা যেখানে যে কোন মুহূর্তে যে কোন ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়।
মানুষজনের নাচ গানের ভিডিও এবং তাদের বিভিন্ন ট্যালেন্ট এর ভিডিও খুব মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যেতে দেখি আমরা।

এই ধরনের ভিডিওতে মানুষের সুপ্ত প্রতিভা আমাদের সামনে চোখে পড়ে পাশাপাশি যদি কেউ ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে তাহলে সেই লোক চক্ষুর নজরে চলে আসতে পারে খুব সহজেই।

সোশ্যাল মিডিয়াতে এমন বেশ কিছু ভিডিও থাকে যার মাধ্যমে খুব সহজে মানুষের ভাইরাল হতে পারে। তার মধ্যে সবথেকে বেশি ভাইরাল হয়ে থাকে বাচ্চাদের ভিডিও এবং হাসির ভিডিও।