Home / এক্সক্লুসিভ / দ্রব্যমূল্য কমায় জনগণের মধ্যে স্বস্তি ফিরেছে: হাছান মাহমুদ

দ্রব্যমূল্য কমায় জনগণের মধ্যে স্বস্তি ফিরেছে: হাছান মাহমুদ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, স্বল্পমূল্যে পণ্য বিক্রির জন্য বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টিসিবির মাধ্যমে এক কোটি পরিবারকে বিশেষ কার্ড দিয়েছেন। এক কোটি বিশেষ কার্ড মানে পাঁচ কোটি মানুষ সেবা পাবে। এতে বাজারে দ্রব্যমূল্য কমে গেছে। দ্রব্যমূল্য কমায় জনগণের মধ্যে স্বস্তি ফিরেছে। জনগণের মধ্যে যখন স্বস্তি ফিরে এসেছে তখন বিএনপির অস্বস্তি বেড়ে গেছে।

মঙ্গলবার চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে সারাদেশে সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব বেরিয়ে আসছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবদুল মোনাফ সিকদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদারের সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন- চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান স্বজন কুমার তালুকদার, আবুল কাশেম চিশতি, রাঙ্গুনিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাস্টার আসলাম খান প্রমুখ।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, করোনার কারণে এবং ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর কিছু কিছু পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি পায়। তখন বিএনপি সারাদেশে নানা বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করেছে। এক্ষেত্রে তারা দ্বিচারিতা নীতি অবলম্বন করেছে। একদিকে পণ্য মজুত করতে এবং পণ্যের মূল্য বাড়াতে মজুতদার ও অসাধু ব্যবসায়ীদের উৎসাহ দিয়েছে, অন্যদিকে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে কর্মসূচি দিয়েছে।

আওয়ামী লীগের এ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ে বিএনপি সারাদেশে বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে। বিএনপির কাজটাই হচ্ছে জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়ানো। আপনারা দেখেছেন যখন পদ্মাসেতু নির্মাণ কাজ শুরু হয় তখন বিএনপি বিভ্রান্তি ছড়িয়েছিল। ছেলেধরা গুজব ছড়িয়েছিল। এ পদ্মাসেতু করতে পারবে না বলে তারা নানা ধরণের বিভ্রান্ত ছড়িয়েছিল। আজকে পদ্মাসেতু হয়ে গেছে, উদ্বোধনের অপেক্ষায়।

তিনি আরো বলেন, সারাদেশে প্রকৃতপক্ষে বিএনপিকে খুঁজে পাওয়া যায় না। বিএনপি আছে শুধু টেলিভিশনের পর্দায়। টেলিভিশনের সাংবাদিকরাই মূলত বিএনপিকে বাঁচিয়ে রেখেছে। বিএনপিকে টেলিভিশন ছাড়া কোথাও খুঁজে পাওয়া যায় না। মাঝেমধ্যে তাদের দুয়েকটি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেই সমাবেশে আবার নিজেরা নিজেরা মারামারি করে।