Home / এক্সক্লুসিভ সংবাদ / ফোনে বাজে ম্যাসেজ, কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় যা ঘটল অভিনেত্রীর সঙ্গে

ফোনে বাজে ম্যাসেজ, কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় যা ঘটল অভিনেত্রীর সঙ্গে

ভারতীয় টেলিভিশনের পরিচিত মুখ প্রিয়াঙ্কা মিত্র। ‘ছদ্মবেশী’ সিরিয়ালের মাধ্যমে শোবিজে পথচলা শুরু করেন তিনি। কিন্তু ধারাবাহিক থেকে আচমকা উধাও নায়িকা। দু’বছর তার দেখা মেলেনি। অতঃপর ‘খড়কুটো’ নাটকে পার্শ্বচরিত্রে পর্দায় ফেরেন প্রিয়াঙ্কা।

এখন প্রশ্ন উঠতে পারে, মাঝের দুই বছর কোথায় ছিলেন নায়িকা? কেন পর্দায় তার দেখা মেলেনি? নায়িকা থেকে কেনইবা পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করছেন? এমন অনেক প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা।

সম্প্রতি ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা জানিয়েছেন, জীবনের প্রথম ধারাবাহিকে কাজ করতে এসেই বাজে অভিজ্ঞতা হয়েছে। পরিচালক-প্রযোজকরা আমাকে প্রচুর উত্ত্যক্ত করেছে। আমার ফোনে খারাপ খারাপ ম্যাসেজ আসতো, সেসব প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শুটিং সেটে আমাকে হেনস্তা করা হয়। কাজ করতে গিয়ে ভয়ে জড়োসড়ো হয়ে থাকতাম। বাড়ি ফিরে কাঁদতাম। শেষমেশ ধারাবাহিকটি থেকে সরে যাই। দুই বছর ইন্ড্রাস্ট্রিতে ফেরার সাহস হয়নি।

তিনি যোগ করেন, সেই খারাপ মানুষগুলো নিজেদের ভুল বুঝতে পেরেছেন। আমাকে নিজেরাই ম্যাসেজে সে কথা জানিয়েছেন। আমার বদলে অন্য অভিনেত্রীকে দিয়ে চরিত্রটা করিয়েছিলেন। কিন্তু ধারাবাহিক সফল হয়নি।

বর্তমান পরিস্থিতি প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, এখন সব পাল্টে গেছে। ওই অভিজ্ঞতাটা মানসিকভাবে আমাকে অনেকটা শক্ত করেছে। এখন আর কাউকে ভয় পাই না, কাঁদিও না। স্পষ্ট কথা স্পষ্ট করে বলি। এখন যাদের সঙ্গে কাজ করি, তারা সবাই একেবারে অন্য রকম। এখানে প্রত্যেককে তার প্রাপ্য সম্মান দেওয়া হয়। একটা সুস্থ পরিবেশে কাজ করছি।

নায়িকা থেকে পার্শ্বচরিত্রে কাজ করা প্রসঙ্গে প্রিয়াঙ্কা বলেন, চরিত্রগুলো তো গুরুত্বপূর্ণ! আগামীতে নিশ্চয় মুখ্য চরিত্র পাব। ‘ছদ্মবেশী’ করতে করতে আমি নিজেই ইন্ডাস্ট্রি থেকে সরে গিয়েছিলাম। দু’বছর পরে ফিরে এসে বোনের চরিত্র খারাপ কী?