Home / এক্সক্লুসিভ সংবাদ / পেঁয়াজের ঝাঁজ ফের বাড়ল

পেঁয়াজের ঝাঁজ ফের বাড়ল

বাজারে দৈনিক নিত্যপণ্যের দাম বাড়ছে। কোনোভাবেই পণ্যের দাম কমানো সম্ভব হচ্ছে না। চার দিন আগেও বাজারে দেশি পেঁয়াজের কেজি ৩০ থেকে ৩৫ টাকা ছিল। আজকে সেই পেঁয়াজের কেজি ৫০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পেঁয়াজের স’ঙ্গে বেড়েছে সবজি ও মাছের দামও। নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃ’দ্ধির কারণে চরম বিপাকে পড়েছেন ক্রেতারা।

শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর কারওয়ান বাজার, যাত্রাবাড়ী, শনিরআখড়া ও মালিবাগ বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ভোজ্যতেল ও রসুনের পাশাপাশি পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। বাজারে দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ কম হওয়ায় হঠাৎ করে দাম আজকে দাম বেড়েছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) গবেষক ড. জায়েদ বখত বলেন, করো’না মহা’মা’রি মানুষের আয় কমেছে বেড়েছে নিত্যপণ্যের দাম। এতে সবচেয়ে বেশি অসুবিধায় পড়ে সীমিত আয়ের মানুষজন। নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে নিয়মিত মনিটরিংয়ের পাশাপাশি মুনাফাখোরদের বিরু’দ্ধে সরকারের কঠোর অবস্থান থাকা জরুরি।

বাজারে গোল বেগু’ন ও করলার কেজি ৮০ টাকা। কালো বেগু’ন ৫০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা গত স’প্তাহে ছিল ৪০ টাকা। প্রকারভেদে শিম বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৭০ টাকা কেজিতে। চিচি’ঙ্গা কেজিতে ৬০ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ী আশিকুর হোসেন বলেন, পেঁয়াজের দাম বেশি হওয়ার কারণে বিক্রি কম হচ্ছে। চার দিনের ব্যবধানে কেজি প্রতি পেঁয়াজের দাম বেড়ে দ্বিগু’ণ হয়েছে।

যাত্রাবাড়ী ব্যবসায়ী লিটন সরকার বলেন, দুই তিন আগেও পেঁয়াজ বিক্রি করেছি ৩০-৩৫ টাকা কেজিতে। সেই পেঁয়াজ এখন বিক্রি করতে হচ্ছে ৫৫ থেকে ৬০ টাকা। কারওয়ান বাজার থেকে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৪৮ টাকা করে কিনতে হচ্ছে। আমর’া কেজি প্রতি ৩-৫ টাকা লাভে বিক্রি করছি ৫৫ টাকায়।