Home / আজকের সংবাদ / যে গোপন কাজ করে তারকা হলেন আজকের অপু বিশ্বাস

যে গোপন কাজ করে তারকা হলেন আজকের অপু বিশ্বাস

অপু বিশ্বাস, এই এক নামেই দেশজুড়ে পরিচিত তিনি। আর ভক্তদের কাছে তিনি ঢালিউড কুইন। গত এক যুগের বেশি সময় ধরে তার মতো জনপ্রিয়তা দেশের কোনো নায়িকা পাননি। ইতিমধ্যে শতাধিক সিনেমায় কাজ করেছেন এই অভিনেত্রী। যার মধ্যে সিংহভাগই ব্যবসাসফল।

অপু বিশ্বাস ১৯৮৯ সালের ১১ অক্টোবর বগুড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। বাবা উপেন্দ্রনাথ বিশ্বাস এবং মা শেফালী বিশ্বাসের তিন মেয়ে ও এক ছেলের মধ্যে সবার ছোট অপু। তার শৈশব ও কৈশোর কেটেছে বগুড়াতেই। বাবা-মায়ের যৌথ উৎসাহতেই ছেলেবেলাতে নাচ শেখা শুরু করেন অপু। বগুড়ার নৃত্যগুরু আবদুস সামাদের কাছে নাচের তালিম নেন তিনি। এ সময়ে তিনি লাইলী মজনু নৃত্যনাট্যে অভিনয় করেছেন। অপুর প্রাতিষ্ঠানিক নাচের হাতেখড়ি হয় বুলবুল ললিতকলা একাডেমিতে। তারপর শিল্পকলা একাডেমি এবং সবশেষে নৃত্যাঞ্চল।

২০০৬ সালে আমজাদ হোসেন পরিচালিত ‘কাল সকালে’ চলচ্চিত্রে নায়িকার বান্ধবীর চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রশিল্পে পদার্পণ এই অভিনেত্রীর। পরে একই সালে এফ আই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ চলচ্চিত্রে নায়িকা হিসেবে অভিনয় করেন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের বিপরীতে। প্রায় সাড়ে ৩০০ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির পর দেশজুড়ে তুমুল জনপ্রিয়তা লাভ করে সিনেমাটি। রাতারাতি তারকা বনে যান তরুণ এই অভিনেত্রী। এই সিনেমার মধ্য দিয়েই পাকাপাকিভাবে শাকিব খানের নায়িকা হয়ে যান অপু।

সুপারহিট সব সিনেমার মাধ্যমে ঢালিউডের শীর্ষ নায়িকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হন অপু বিশ্বাস। অভিনয় দক্ষতা দিয়ে অর্জন করেন বাংলাদেশ কালচারাল রিপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশন পুরস্কার, ইউরো-সিজেএফবি পারফরম্যান্স পুরস্কার, গ্ল্যামার পুরস্কার, ইফাদ ফিল্ম ক্লাব পুরস্কার, বাচসাস পুরস্কার। ছয়বার মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারে মনোনয়ন লাভ করেন এই গুণী অভিনেত্রী।

ব্যক্তিগত জীবনে অপু বিশ্বাস বিয়ে করেছেন নায়ক শাকিব খানকে। ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল বিয়ে করেন তারা। তবে ক্যারিয়ারের কথা ভেবে দুজনেই বিষয়টি গোপন রাখেন। ২০১৭ সালে ছেলে আব্রাহাম খান জয়কে নিয়ে প্রকাশ্যে আসেন অপু। ওই বছরের ২২ নভেম্বর তালাকের আবেদন করেন শাকিব। ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি এ দম্পতির বিবাহবিচ্ছেদ কার্যকর হয়।