Home / আজকের নিউজ / ভাইরাল ভিডিওটি আমার নয় বলার পরও সাবেক প্রতিযোগী বললেন ‘কর্মফল’ (ভিডিও)

ভাইরাল ভিডিওটি আমার নয় বলার পরও সাবেক প্রতিযোগী বললেন ‘কর্মফল’ (ভিডিও)

সম্প্রতি একটি ছোট ভিডিও ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়াসহ নানা মাধ্যমে। যেখানে ক্যামেরার সামনে দুই যুবক-যুবতীকে অশ্লীল কাজে মগ্ন দেখা যায়। ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়তেই সমালোচনার ঝড় শুরু হয়। অনেকেরই দাবি, ভিডিওতে থাকা যুবতীর মুখের গড়ন দক্ষিণী অভিনেত্রী অঞ্জলি অরোরার মতো। তাতেই রটে গেল ওই যুবতী অঞ্জলি। শুরু হলো কুৎসা ছড়ানো।

ক্যারিয়ারের শুরুতেই এমন সংবাদে যেন বিপাকে পড়লেন দক্ষিণী অভিনেত্রী। এমনকি তার পরিবারও এখন লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছেন না। সোমবার (১৫ আগস্ট) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার এক খবরে বলা হয়েছে, অঞ্জলি বারবার বলছেন ভিডিওর যুবতী তিনি নন। সম্প্রতি ইউটিউবার সিদ্ধার্থ কাননের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে কান্নায় ভেঙেও পড়েছিলেন তিনি। এই অভিনেত্রী বলেন, মাত্র ২২ বছর বয়স আমার।

ছোট ভাই রয়েছে। আমার নামে যারা কুৎসা রটালেন, একবারও ভাবলেন না যে আমার পরিবার রয়েছে। স্রেফ মজার জন্য কারও সম্মান নিয়ে এভাবে খেলা যায়? এসব মানুষই কি বিখ্যাত করেছেন আমায়? সব এলোমেলো হচ্ছে। একদমই মেনে নিতে পারছি না আমি। লাস্যময়ী তারকার যে শত্রুর অভাব নেই, সেটাও স্পষ্ট হলো। বলি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের রিয়্যালিটি শো ‘লক আপ’-এ অংশ নিয়ে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন অঞ্জলি। বিষয়টি সেই সময়ই অনেকে মেনে নিতে পারেনি। আর এবার সেই শোরই প্রতিযোগী আজমা ফাল্লাহ ঘি ঢাললেন আগুনে।

আজমা উল্লাহ ভিডিও বার্তায় কারও নাম উল্লেখ না করেই বলেন, সবাই নিশ্চিত সেই বিখ্যাত ভিডিওটি দেখেছেন। আসলে কর্মফল তো ভোগ করতেই হবে। যে লক আপের মাধ্যে বিবস্ত্র করেছিল আমাদর, এখন সবাই তাকেই অনাবৃত দেখছে। মনে হয় কি, এটাই তার উচিত শিক্ষা হয়েছে?

আজমার এই ভিডিওতে অবশ্য অনেকেই প্রতিবাদ জানিয়েছেন। কেউ লিখেছেন, একজন নারী হয়ে অন্য এক নারীকে ছোট করবেন না। আবার কেউ লিখেছেন, ভিডিওটি ভুয়া ছিল। আপনি জানেন না দেখছি।