Home / এক্সক্লুসিভ সংবাদ / কী হবে বাপ্পি লাহিড়ির বিশাল স্বর্ণের গহনাগুলোর? উত্তর দিলেন ছেলে

কী হবে বাপ্পি লাহিড়ির বিশাল স্বর্ণের গহনাগুলোর? উত্তর দিলেন ছেলে

গলায় একগুচ্ছ সোনার চেন, হাতে চার পাঁচটা আংটি আর চোখে কালো সানগ্লাস। বাপ্পি লাহিড়ীকে চিরদিন এমনি সাজে দেখে এসেছে সকলে। ‘দ‍্য গোল্ডেন ম‍্যান’ নামে খ‍্যাতি পেয়েছিলেন বাংলার ছেলে। খুব অপ্রত্যাশিতভাবেই চলে গেছেন বলিউডের বাপ্পি লাহিড়ি। গত ১৫ ফেব্রুয়ারি মারা গেছেন তিনি। সারা জীবন নিজেকে সোনা দিয়ে মুড়ে রাখা মানুষটার শেষযাত্রাতেও গলায় ছিল প্রিয় সোনার চেন।তবে গহনা থেকে শুরু করে জুতা পর্যন্ত যে বিশাল স্বর্ণের সম্ভার গড়ে তুলেছিলেন তিনি, সেসব স্বর্ণের ভাণ্ডারের কী গতি হবে? সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সেটি জানিয়েছেন গায়কের ছেলে বাপ্পা লাহিড়ি।

আসলে বাপ্পি লাহিড়ি গহনাগুলো অলঙ্কারের বদলে সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবেই পরতেন। যেখানেই যান না কেনো, গহনা ছাড়া তাকে সহজে কোথাও দেখা যায়নি। সাথে নিত্য সঙ্গী ছিল তার কোলো রঙের সানগ্লাস। বাপ্পি লাহিড়ির শেষকৃত্যের সময় তার সাথেই চিহ্ন মুছে যায় সেই সানগ্লাসের। তবে গহনাগুলো?

গায়কের ছেলে বাপ্পা লাহিড়ি এ নিয়ে বলেন, বাবা কোনো দিন স্বর্ণ ছাড়া ঘরের বাইরে বেরোননি। ভোর পাঁচটায় বিমান ধরতে হলেও সমস্ত স্বর্ণের গহনা গায়ে পরে নিয়েই বেরিয়েছেন। স্বর্ণ যেনো তার কাছে মন্দিরতুল্য, তার ক্ষমতা। আধ্যাত্মিক কোনো যোগ ছিল স্বর্ণের সঙ্গে।

বাপ্পা জানালেন, বাপ্পির অনুরাগীরা যাতে তার সেই স্বর্ণগুলো নিজের চোখে দেখতে পারেন, তাই সেগুলো একটি সংরক্ষণাগারে রাখা হবে। বেশ কয়েকটি স্বর্ণের জুতা, ঘড়ি, সানগ্লাস, টুপি ও গয়না রয়েছে বাড়িতে। সব কিছুই সংরক্ষণাগারে জমা দেয়া হবে বলে জানালেন বাপ্পি পুত্র।