Home / ত্বকের যত্ন / এই গরমে তৈলাক্ত ত্বক তরতাজা আর উজ্জ্বল রাখতে যা করবেন!

এই গরমে তৈলাক্ত ত্বক তরতাজা আর উজ্জ্বল রাখতে যা করবেন!

ভ্যাপসা গরমে ত্বকের একেবার নাজেহাল অবস্থা। বিশেষ করে যাঁদের তৈলাক্ত ত্বক, তাঁদের সমস্যাটা আরো বেশি। তাদের ত্বকে নানারকম সমস্যা দেখা দিতে পারে, আর তার সঙ্গে ব্রণ, ব্ল্যাকহেডস, হোয়াইটহেডস তো রয়েছেই। গরম তো আর নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না, তাই ত্বকের বাড়তি তেল জমে যাওয়ার সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে। দেখে নিন ঠিক কী করলে এই গরমেও তরতাজা থাকবে ত্বক-



লেবুর রসঃ লেবুর রসের অ্যাস্ট্রিনজেন্ট ত্বকের বাড়তি তেল শুষে নেয়, বদলে আপনাকে দেয় তরতাজা উজ্জ্বল ত্বক। লেবুর রসে জল মিশিয়ে তুলো দিয়ে ত্বকে লাগান। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। টোমেটোঃ রোমছিদ্র সঙ্কুচিত করতে সাহায্য করে টোমেটো। চাকা করে টোম্যাটো কেটে মুখে ঘষে নিন, শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তারপর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। শসাঃ ত্বক শীতল ও তরতাজা রাখতে শসার রসের জুড়ি নেই। শসার রস ত্বকের বাড়তি তেলতেলেভাব শুষে নেয়, দাগছোপও তুলে দেয় নিখুঁতভাবে।



ডিমের সাদাঃ ত্বকের রোমছিদ্র সংকুচিত করতে ডিমের সাদা খুবই কার্যকরী। ত্বকের বাড়তি তেলও শুষে নেয় ডিমের সাদা আর ত্বকে অত্যাবশ্যকীয় প্রোটিনের জোগান দেয়। অ্যাপল সাইডার ভিনিগারঃ ত্বকের জন্য কোমল আর নিরাপদ টোনার খুঁজছেন? বেছে নিন অ্যাপল সাইডার ভিনিগার। মুখের বাড়তি ঘাম-তেল শুষে নিতে দারুণ কাজ দেয় অ্যাপল সাইডার ভিনিগার।



বেসনঃ ত্বক থেকে বাড়তি তেল আর মৃত কোষ পরিষ্কার করতে বেসনের প্যাক ভীষণ কাজের। জলে পরিমাণমতো বেসন গুলে মুখে লাগান। শুকিয়ে গেলে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। বরফঃ বাড়তি তেল হঠিয়ে ত্বক শীতল রাখার সবচেয়ে সহজ আর দ্রুত উপায় বরফ লাগানো। পরিষ্কার কাপড়ে বরফ মুড়ে ত্বকে কিছুক্ষণ ঘষুন। বরফ রোমছিদ্র সঙ্কুচিত করে, ত্বকে রক্তসঞ্চালনও উন্নত হয়। স্বাভাবিকভাবেই ত্বক তেলমুক্ত ও উজ্জ্বল থাকে।



বেসন, দুধ ও হলুদঃ প্রাচীন শাস্ত্রে মসৃণ ও নরম ত্বকের রহস্য কিন্তু এই তিনটি উপাদানই। এর নিয়মিত ব্যবহার আপনার ত্বকের রুক্ষতা ও শুষ্কতা দূর করে। আপনার মুখের সাথে সাথে শরীরের অন্যান্য অঙ্গের রুক্ষতা দূর করতে এই মিশ্রণ সমান ভাবে উপকারী। কাঁচা হলুদবাটা ১ চামচ ও বেসন ২ চামচ নিয়ে সঠিক পরিমাপ অনুযায়ী দুধের সাথে মেশান যাতে পেস্ট তৈরী হয়| এবার এই পেস্ট-টি মুখে বা শরীরের অন্যান্য অঙ্গে মাখুন। ১৫-২০ মিনিট পরে হালকা গরম পানি হাতে নিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই মিশ্রণটি সপ্তাহে ২ বার ব্যবহার করুন। আপনার ত্বকের মসৃণতা আপনি নিজেই ছুঁয়েই বুঝতে পারবেন।



ওটমিল ও দারচিনিঃ ওটমিল আমাদের ত্বকের মৃত কোষগুলোকে খুব সহজেই পরিষ্কার করে এবং ত্বককে মসৃণ করে। দারচিনি এমন একটি প্রাকৃতিক উপাদান যা আমদের ত্বকের রুক্ষতা বা যেকোনো ইনফেকশন, ফাইন-লাইন বা বলিরেখা এগুলো দূর করে ত্বককে আরও মসৃণ করে তোলে। ২ বড় চামচ ওটমিল, ১/২ চামচ দারচিনি পাউডার ও ১ বড় চামচ দুধ ভালো করে মিশিয়ে নিন। আপনার আঙুলের সাহায্যে মুখে ৪-৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন। ১০-১৫ মিনিট পর ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ২ দিন এই মিশ্রণ ব্যবহার করলে ১ সপ্তাহের মধ্যেই আপনি পার্থক্য লক্ষ্য করবেন। আপনার শরীরের অন্যান্য অঙ্গগুলোর ত্বক মসৃণ করার জন্যও এই মিশ্রণটি ব্যবহার করুন, শুধু উপাদানগুলোর পরিমাণ সমান রেশিও অনুযায়ী বাড়িয়ে নিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *