[X]
Home / ফিটনেস / ডায়েট ছাড়াই মাসে ৫কেজি ওজন কমান সহজ উপায়ে

ডায়েট ছাড়াই মাসে ৫কেজি ওজন কমান সহজ উপায়ে

শরীরের ওজন প্রয়োজনের তুলনায় অধিক পরিমাণে বেড়ে গেলে তা নারী-পুরুষ উভয়ের জন্যই অস্বস্তিকর। ওজন বাড়লে আপনার দৈহিক সৌন্দর্য কমে। ডাক্তাররা প্রায়ই সতর্ক করে দেন যে অতিরিক্ত ওজন ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ এমনকী ক্যান্সারের মতো বিভিন্ন রোগের ঝুঁকি বাড়ায়। ওজন নিয়ন্ত্রণ এবং পাতলা থাকা আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। ওজন হ্রাস আপনার চেহারা এবং ব্যক্তিত্ব উন্নতি ছাড়াও রোগ থেকে আপনাকে রক্ষা করবে। তাই আপনার উচ্চতার সঙ্গে ওজনের সামঞ্জস্য থাকতে হবে।



আমরা অনেকেই মনে করি, ডায়েট ছাড়া কখনোই ওজন কমানো সম্ভব নয়। কিন্তু কিছু বিষয় রয়েছে যেগুলো ডায়েট ছাড়াও ওজন কমাতে বেশ কাজ করে। উচ্চতার তুলনায় ওজন সামান্য বেশি হলে এই কিছু পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারেন। যাদের ওজন উচ্চতার তুলনায় অনেক বেশি তারা ডায়েটের পাশাপাশি এই বিষয়গুলোর খেয়াল করতে পারেন। তাহলে কমতে পারে আপনার ওজন। আসুন জেনে নেই ডায়েট ছাড়া কীভাবে কমাবেন আপনার ওজন।



ছোট থালায় খাওয়ার অভ্যাস ও তরল পানীয়
ওজন কমাতে হলে ছোট থালাতে খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে।বড় থালায় খাবার বেশি ধরে, যা আপনার ওজন বাড়াবে। তাই ছোট থালায় খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে। ওজন কমাতে ফলের জুস, চিনি ছাড়া চা,কফি,উদ্ভিজ্জ স্যুপ খেতে পারেন।তবে মিষ্টি পানীয় গ্রহণ করবেন না।



ভারি খাবার খাওয়ার আগে ফল খান ও ফল এবং শাক-সবজি খান
ভারি খাবার খাওয়ার ৩০ মিনিট আগে ফল খান। এতে ফল ভালোভাবে হজম হয় আর ওজন কমাতেও সাহায্য করে। ওজন কমাতে ফল ও সবজি খেতে পারেন প্রচুর পরিমাণে।ফল ও সবজিতে শরীরের ওজন বাড়ে না। ভাতের পরিমাণ কমিয়ে সবজি খান প্রচুর পরিমাণে।সবজি রান্নার সময় তেল দেবেন না।



শস্য দানা
কিছু শস্য দানা রয়েছে, যা ওজন কমাতে সাহায্য করে।সাদা চালের পরিবর্তে বাদামি চাল গ্রহণ করুন। রুটি এবং পাস্তা সাদা শস্যের পরিবর্তে পুরো গম দিয়ে তৈরি করুন। ওটস এবং বার্লি ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করে।



খাবার চিবিয়ে খান
দীর্ঘক্ষণ চিবিয়ে খাবার খেলে এর বেশ উপকার পাওয়া যায়।দীর্ঘক্ষণ খাবার চাবালে কম ক্যালোরি গ্রহণ করা হয়,কম খাওয়া হয়।এতে পেট খালি হওয়ার সংকেত মস্তিষ্কে দেরিতে পৌঁছায়।এটা কেবল হজম ভালো হতেই সাহায্য করে না,খাওয়ার পরিমাণও কমে।ফলে ওজন কমে।



নিয়মিত ব্যায়াম করবেন
ওজন কমাতে ব্যায়ামের বিকল্প নেই।ফিট বাড়াতে ও শরীর পাতলা রাখতে নিয়মিত ব্যায়াম করবেন।সকালে নিয়মিত হাঁটা ছাড়াও সাঁতার,সাইক্লিং,নাচ এবং সিঁড়ি আরোহণ করা অনেক সাহায্য করে।



যোগব্যায়াম ও ঘুমাতে হবে
ব্যায়াম ছাড়াও যোগব্যায়াম করলেও কমতে পারে আপনার ওজন।যোগব্যায়াম মন ও শরীর দুটোই ভালো রাখে।যোগব্যায়াম ভঙ্গি করার সঠিক পদ্ধতি শিখুন।ভালো ফলাফলের জন্য দৈনন্দিন যোগব্যায়াম করুন। অনেকের ধারণা ঘুমে ওজন বাড়ে।কিন্তু সুস্থ থাকতে হলে আপনাকে একটি নির্দিষ্ট সময় ঘুমাতে হবে।ভালো ঘুম আপনার সুস্বাস্থ্য ধরে রাখতে সাহায্য করে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *