Home / দাম্পত্য জীবন / প্রথমবার শারীরিক সম্পর্কের পর কি হয় দেখুন!

প্রথমবার শারীরিক সম্পর্কের পর কি হয় দেখুন!

বর্তমান সময়ে বিবাহের আগেই অনেক জুটি শারিরীক সম্পর্কে মিলিত হয় বলেই জানা যায়। তবে প্রথমবার শারিরীক মিলনের পর মেয়েরা অনেক কিছুই ভাবতে থাকে। নারীদেরও উত্তেজনা হওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। নারীমন দাম্পত্য নিয়ে অনেক রকম চিন্তা-ভাবনা করে। অনেক রকম ভয় ও শঙ্কা থাকে প্রথম থেকেই। এদিকে বিষয়টা উপভোগ করার জন্যও আকুল হয়ে ওঠে মন। তবে আসুন জেনে নেয়া যাক – প্রথম পুরুষ স্পর্শ ও দাম্পত্যর সঙ্গে প্রথম পরিচয়ের পর নারী কী ভাবে জেনে নিন:



১) এতদিন দাম্পত্য নিয়ে যা যা শুনেছে, মনে মনে সেসবই নিজের অভিজ্ঞতার সঙ্গে মেলাতে শুরু করে মেয়েরা। ২) চিন্তা করতে শুরু করে জানা জানি হলে কী হবে? তবে এমন চিন্তার উদ্রেক ঘটে প্রি ম্যারিটাল সহবাসের ক্ষেত্রেই। পরকীয়ার ক্ষেত্রেও এমন ভয় দানা বাঁধা অস্বাভাবিক কিছু নয়।



৩) ভয় শুরু হয়, বাড়ি গিয়ে কী বলবে? কী বলবে, এতক্ষণ কোথায় ছিল, কার সঙ্গে ছিল? ৪) প্রথম সহবাস করেই মাথায় ঘুরতে থাকে প্রেগনেন্সি আসবে না তো? অনেক মেয়েকে কয়েকদিনের মধ্যেই লুকিয়ে লুকিয়ে প্রেগন্যান্সি টেস্ট করতে দেখা যায়।

৫) যাঁর সঙ্গে গোপন মুহূর্ত কাটল, সেই ব্যক্তি তার বিশ্বাস ভাঙবে কিনা সেই নিয়েও ভয় শুরু হয় মনে মনে। বিশ্বাস ভাঙলে কারোর কাছে মুখ দেখাতে পারবে না, সেই চিন্তায় অনেক সময় রাতের ঘুম উড়ে যায়। ৬) ক্ষীণ শঙ্কা হয় সম্পর্ক ভেঙে গেলে বা নেতিবাচক কিছু ঘটলে কী হবে?



৭) সম্পর্কের কিছুদিনের মধ্যেই যদি শারীরিক সম্পর্ক তৈরি হয় তাহলে অনেক মেয়ের মনেই এই প্রশ্ন তৈরি হয়- “আমাকে খারাপ মেয়ে ভাবছে না তো ?” তবে দীর্ঘদিনের সম্পর্কের ক্ষেত্রে এই ভাবনা খুব একটা আসে না। তখন মনে হয়, “না না ও আমাকে চেনে। নিশ্চয় কিছু ভাবছে না। আর তা ছাড়া চাহিদাটা তো ওরও অনেকদিন ধরেই ছিল।”



৮) কিছু কিছু ক্ষেত্রে প্রেমিককেও সন্দেহের চোখে দেখতে শুরু করে কোনও কোনও নারী। মনে করতে শুরু করে হয়তো এই শারীরিক কারণেই প্রেমের অভিনয়। ৯) আবার কখনও মনে হয়, “আচ্ছা আমার সাথে এত সহজে মেতে উঠল, অন্য কারোর সাথে একই জিনিস করে না তো”

১০) কোনও কোনও ক্ষেত্রে মনে শঙ্কা আসে, গোপনে ছবি, ভিডিও তুলে রাখছে না তো ? যদি সেই মেয়েকে জানিয়েই ছবি তোলা হয়, তাহলে মনে চিন্তা আসে- ভবিষ্যতে আমাকে ব্ল্যাকমেইল করবে না তো?


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *