Home / ত্বকের যত্ন / মুখের লালচে ও কালো দাগ দূর করার জন্য ৬ টি বেস্ট ক্রিম সম্পর্কে ও নাম জানুন!

মুখের লালচে ও কালো দাগ দূর করার জন্য ৬ টি বেস্ট ক্রিম সম্পর্কে ও নাম জানুন!

আপনারা অনেক সময়েই মুখ খুব লালচে হয়ে থাকতে দেখেছেন হয়ত। মুখে বেশ কিছু লাল লাল দাগও দেখেছেন নিশ্চয়ই। রোসাকিয়া নামিক ত্বকের সমস্যায় যারা ভোগেন তাদের এটা বেশি হয়। এই মানুষরা যখন বাইরে রোদে যান তখন বা অতি মাত্রায় খুশি বা দুঃখিত হলে মুখ বেশি লাল হয়ে যায়। কখনও কখনও এই সমস্যা খুব বড় আকার নেয়। মুখ চুলকাতে শুরু করে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার একটাই উপায় হল মুখে ইউ.ভি.এ বা ইউ.ভি.বি সমৃদ্ধ ক্রিম ব্যবহার করা। আজ আপনাদের সেরকমই ছটি ক্রিমের কথা জানাবো।



১. বায়ো বিউটি অ্যালোভেরা ক্রিম
আপনার মুখে যদি লালচে দাগ থাকে, তাহলে বায়ো বিউটি প্রোডাক্টের তরফ থেকে এটি একটি অনবদ্য উপহার আপনাদের জন্য। এই ক্রিমটি অত্যন্ত অ্যাডভান্সড আর এতে আছে পেঁয়াজের রস। এর পাশাপাশি এতে আছে অ্যালোভেরা আর ভিটামিন ই। তাই আপনার স্কিন থাকে নরম আর উজ্জ্বলও। আর লাল দাগ দূর করতে তো এটি অনবদ্য থেরাপি। তাই দেরি না করে এই ক্রিম আজ থেকেই ব্যবহার শুরু করুন।



২. বডি ল্যাঙ্গুয়েজ ফেস মাস্ক
যদি আপনি আপনার মুখে এই দাগের সমস্যা নিয়ে থাকেন, তাহলে এই ক্রিম কিন্তু খুব সুন্দর একটি সমাধান আপনার জন্য। এর মধ্যে থাকে মূলত ছাগলের দুধ। তার সঙ্গে এতে থাকে মধু, অরেঞ্জ জুস আর গোলাপের পাপড়ি। জানেন যে ছাগলের দুধের মধ্যে এমন উপাদান থাকে যা বয়সের ছাপ তাড়াতাড়ি পড়তে পারে। এ ছারাও দুধে থাকা ল্যাকটিক অ্যাসিড আর আলফা হাইড্রোক্সি অ্যাসিড মুখের মরা চামড়া সরিয়ে নতুন কোষের জন্ম দেয়। নিয়মিত ব্যবহার করলে তাই উপকার পাবেনই। গোলাপ পি.এইচ ব্যালান্স ধরে রাখে। বন্ধ পোর্স খুলে দেয়। আর অরেঞ্জে আছে ভিটামিন সি যা এই দাগ তুলে দিতে আরও বেশি কার্যকরী।



৩. বাই চয়েস অ্যাকনে ক্রিম
এই ক্রিম আসলে অ্যালোভেরায় খুবই সমৃদ্ধ। তাই এই ক্রিম খুব সহজেই ব্ল্যাক হেডস বা ওই লাল দাগ, সবই দূর করে দেয়। এই ক্রিম শুধুই দাগ দূর করে তা নয়, ভবিষ্যতে আবার ফিরে আসার পথও বন্ধ করে। সব রকম অস্বাস্থ্যকর উপাদান ত্বক থেকে দূর করে ত্বক করে তোলে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল।



৪. তিজোরি ইন্ডিয়ান রোজ ফেস জেল
এই ক্রিম অ্যালোভেরা আর গোলাপ পাঁপড়ি দিয়ে তৈরি। তাই আপনি বিশ্বাস করতেই পারেন যে আপনার ত্বকের লাল দাগ তুলতে এটি অব্যর্থ। এটি ত্বকের ময়েশ্চার ধরে রাখে আর চুলকানি ভাবও কমিয়ে দেয়। গোলাপকে সব দিক থেকে সর্বাঙ্গীণ সুন্দর একটি উপাদান বলা যায় ত্বকের জন্য কারণ এটি শুধু যে ত্বক নরম রাখে তা নয়, ভিতর থেকে শক্তিশালী করে তোলে। এছাড়াও গোলাপের মধ্যে আছে বয়সের ছাপ না আসতে দেওয়ার ক্ষমতা। অ্যালভেরায় থাকা আউক্সিন আর জিব্রালিন উপাদান ত্বকের জ্বালা ভাব কমায়।



৫. বোটানিকা থ্রিডি ইনটেন্স সিরাম
বোটানিকা ব্র্যান্ডের থ্রিডি ইনটেন্সিভ রিভাইটালাইজার ত্বকের অনেক সমস্যা থেকে সমাধান দেয় যেমন ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখে। এছাড়া ফাইন লাইন্স আসতে দেয় না, ত্বকের রঙের ভারসাম্য বজায় রাখে। এটা ত্বকের ময়েশ্চার ধরে রাখে। তাই ত্বক কোমল লাগে। এতে থাকা নিকোটিন আর গ্লিসারিন তাড়াতাড়ি স্কিনে মিশে যায় আর ত্বক তেলতেলে লাগে না। সঙ্গে সঙ্গেই আপনার স্কিন লাগে উজ্জ্বল আর পরিষ্কার।



৬. ই.এন.কিউ অরেঞ্জ অ্যান্ড অ্যালোভেরা হাইড্রেটিং ফেসিয়াল জেল
এই ক্রিম হল ৬টি গুরুত্বপূর্ণ উপাদানের মিশ্রণ। এই উপাদান হল অরেঞ্জ, সাহাজান, গ্রিন টি, অ্যালোভেরা, লেবু আর নিম। এতো কিছু এই ক্রিমে আছে বলেই এই ক্রিম ভিটামিন সি, ই, ক্যারোটিনে সমৃদ্ধ যা অ্যান্টি এজিং আর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। আর অ্যান্টি মাইক্রোবায়াল উপাদানের জন্য এটি ত্বকে ময়েশ্চার ধরে রাখে। অ্যালোভেরা থাকার জন্য ত্বক হয় স্বাস্থ্যবান।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *