[X]
Home / ত্বকের যত্ন / চিরতরে মেছতার দাগ দূর করার সেরা কয়েকটি ঘরোয়া উপায়

চিরতরে মেছতার দাগ দূর করার সেরা কয়েকটি ঘরোয়া উপায়

জানেন কি?বাড়িতে থাকা কয়েকটা সহজ উপাদান মেচেতার মত বিরক্তিকর সমস্যা কমাতে জাস্ট অসাধারণ কাজ দেয়,যেগুলো নিয়মিত ব্যবহার করলে,ভেতর থেকে সমস্যার সমাধান হয়,যেগুলো ফিরিয়ে দিতে পারে আবার আগের মত একদম ক্লিয়ার স্কিন।তাই কিভাবে একেবারে বরাবরের মত মুক্তি পাবেন মেচেদা থেকে,জানতে আজকের আর্টিকেল অবশ্যই মন দিয়ে পড়ুন।

কেন হয় মেচেতা?
এর একটা অন্যতম কারণ হল সূর্যরশ্মি।খুব বেশি রোদে ঘুরলে এই সমস্যা হতে পারে।আবার এর পেছনে থাকতে পারে বংশগত কারণও।এছাড়াও থাইরয়েডের সমস্যা থাকলে বা মুখ পরিষ্কার না করলে,মুখে ক্রমাগত ময়লা জমে জমে এই সমস্যা হতে পারে।এছাড়াও খুব বেশি চিন্তা করলে,ঘুম ঠিক মত না হলেও এই সমস্যা হতে পারে।

লেবু ও চিনি
লেবুর রসে আছে সাইট্রিক অ্যাসিড যা আমরা জানি মুখের যে কোনো দাগ হালকা করতে পারে।তাই এক্ষেত্রেও লেবু বিফল হবে না তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।আর সঙ্গে যদি মিশিয়ে নেওয়া যায় একটু চিনি,তাহলে তো আর কোন কথাই নেই। উপকরণ: ১ চামচ লেবুর রস ও ১চামচ চিনি।

পদ্ধতি: ১চামচ লেবুর রস মেচেদার ওপর লাগিয়ে নিন।এটা কিছুক্ষণ রাখুন।ওই ৫ থেকে ১০ মিনিট রাখলেই হবে।এরপর একটু চিনি আগে গুঁড়ো করে নিন।এরপর ওই গুঁড়ো চিনি লেবুর রসের ওপর ঘষুন।৫ মিনিট মত ঘষলেই হবে।তারপর ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন।এটা সপ্তাহে তিনদিন করুন।দেখবেন আসতে আসতে দাগ থেকে মুক্তি পাবেন।একইভাবে শুধু লেবুর রসও মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন ১৫ মিনিট।একমাসের মধ্যেই ফল পাবেন।কিন্তু স্কিন যদি হয় সেনসিটিভ তাহলে শুধু লেবুর রসটা না লাগিয়ে তাতে একটু মধু আর ১চামচ গোলাপজল মিশিয়ে লাগান।

আলু ও মধু
আলু ও মধু দুটোই ব্লিচ হিসাবে কাজ করে।তাই মুখের যে কোনো দাগ সরাতে দারুণ উপকারী। উপকরণ: একটা আলু ও ১চামচ মধু।

পদ্ধতি: প্রথমে আলুর পেস্ট করে নিন।এবার এই পেস্টের সাথে মধু মেশান।এটা মুখের দাগের জায়গায় লাগান।১৫ থেকে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন।তারপর ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন।সপ্তাহে তিন থেকে চার দিন করুন এটি।খুব ভালো ফল পাবেন।

মধু ও অ্যালোভেরা
অ্যালোভেরা ও মধু জাস্ট দারুণ কম্বিনেশন, মেচেতার দাগ দূর করতে।এটা শুধু যে স্কিনের দাগ হালকা করবে তাই নয়,সঙ্গে স্কিনে দেবে একটা সুন্দর গ্লো।

উপকরণ: ১ চামচ মধু ও ১ চামচ ফ্রেশ অ্যালোভেরা জেল।

পদ্ধতি: বাড়িতে যদি অ্যালোভেরা গাছ থাকে তাহলে খুব ভালো।প্রথমে সেখান থেকে পাতা কেটে,জেল বার করে নিন।এবার এই ১চামচ অ্যালোভেরা জেলের সাথে ১চামচ মধু মিশিয়ে পেস্ট বানান।এবার এই পেস্টটা দাগের ওপর লাগান।১৫ থেকে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন।তারপর ধুয়ে ফেলুন।সপ্তাহে তিনদিন করুন।

কমলালেবুর রস
কমলালেবুতে আছে প্রচুর ভিটামিন সি যা যে কোনো দাগ হালকা করতে পারে।আর কমলালেবুর রস শুধু দাগ হালকা নয়,স্কিনকে গ্লোয়িং করে তুলতেও সাহায্য করবে। উপকরণ: ১ থেকে ২চামচ কমলালেবুর রস,১চামচ চন্দন,১চামচ পাতিলেবুর রস ও দুটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল।

পদ্ধতি: কমলালেবুর রস,পাতিলেবুর রস ও চন্দন আগে মিশিয়ে নিন।এবার ভিটামিন ই ক্যাপসুল থেকে তেল বার করে এতে দিন।ভালো করে মেশান।এবার এই পেস্ট মুখের দাগের ওপর লাগান বা গোটা মুখেই লাগাতে পারেন।২০ মিনিট মত রেখে ধুয়ে ফেলুন।সপ্তাহে তিনদিন করুন।আসতে আসতে পার্থক্যটা নিজেই বুঝতে পারবেন।

টকদই
ডেয়ারি প্রোডাক্ট হওয়ায়,এতে আছে প্রচুর ল্যাকটিক অ্যাসিড যা মেচেদার মত দাগ হালকা করতে অনবদ্য।সেই সঙ্গে স্কিনকে ময়েশ্চারাইজড করে। উপকরণ: ১চামচ দই ও ১চামচ মধু।

পদ্ধতি: দই ও মধু ভালো করে মিশিয়ে নিন।এবার এটা মুখে লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট মত।তারপর ধুয়ে নিন।সপ্তাহে তিনদিন করুন বা একইভাবে শুধু দই নিয়েও মুখে ম্যাসাজ করতে পারেন রোজ।বিশেষ করে দাগের ওপর ম্যাসাজ করুন ভালো করে।রোজ করলে একমাসের মধ্যেই ফল পাবেন।

টম্যাটো
টম্যাটোতে আছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যেটা স্কিনের এই ধরনের দাগ হালকা করতে বেশ উপকারী।আর সেই সঙ্গে স্কিনকে ভেতর থেকে রেডিয়েন্ট করে তুলবে। উপকরণ: ১চামচ টম্যাটোর পেস্ট।

পদ্ধতি: টম্যাটোর পেস্ট জাস্ট মুখে দাগের জায়গায় লাগান।একটু ম্যাসাজ করুন।তারপর এটা ১৫ মিনিট রাখুন।তারপর ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন।পেস্ট করার সময় না থাকলে শুধু টম্যাটো একটু কেটে নিয়ে,সেটাও দাগের জায়গায় ঘষতে পারেন।এতেও একই কাজ হবে।যদি চোখের তলায় কালি থাকে,তাহলে একটু টম্যাটো চোখের তলায়ও ঘষে নিতে পারেন।এতে চোখের তলায় কালিও দূর হবে সঙ্গে মেচেদাও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *