[X]
Home / স্বাস্থ্য-সেবা / রাতে নারীরা অন্তর্বাস পরে ঘুমানোর কুফল জেনে নিন!

রাতে নারীরা অন্তর্বাস পরে ঘুমানোর কুফল জেনে নিন!

শুধু আমাদের দেশ নয় বিশ্বের প্রায় সব দেশের অধিকাংশ নারীই রাতের বেলা অন্তর্বাস অর্থাৎ ব্রা ও প্যান্টি পরিধান করে ঘুমান। সেই কিশোরী বেলা থেকেই এই অভ্যাসটি শিখিয়ে দেন পরিবারের বয়যোষ্ঠ্য নারীরা। কিন্তু একজন নারী হিসাবে আপনি জানেন কি, এই ২৪ ঘণ্টা অন্তর্বাস পরে থাকার অভ্যাস বা রাতের বেলাতেও অন্তর্বাস পরে ঘুমানোর অভ্যাসের কারণে কী সব স্বাস্থ্য সমস্যার মুখে পড়ছেন আপনি? এছাড়াও এই রাতের বেলা অন্তর্বাস পরা নিয়ে আছে বিচিত্র কিছু ভুল ধারণাও। সব মিলিয়ে এই অভ্যাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন আপনি, বাড়ছে স্বাস্থ্য সমস্যা। চলুন, আজ জেনে নিই রাতের বেলা নারীদের অন্তর্বাস পরে ঘুমানোর স্বাস্থ্য ঝুঁকি গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত।

১) অধিকাংশ নারীই মনে করেন যে রাতের বেলা ব্রা পরিধান করে ঘুমানো অত্যন্ত ভালো অভ্যাস, এতে আপনার স্তনের শেপ সুন্দর থাকতে সহায়তা হয়। এটা একেবারেই ভুল ধারণা। রাতের বেলা ব্রা পরিধান করলে স্তন ঝুলে যাবে না, এমন কোন প্রমাণ নেই। বয়সের কারণে এটা হবেই। বরং ২৪ ঘণ্টা ব্রা পরিধান করার অভ্যাসের কারণে মারাত্মক পিঠে ব্যথায় ভুগতে পারেন আপনি। তাই, অন্তত রাতের বেলা ব্রা খুলে রেখে ঘুমাতে যান, শরীরকে আরাম দিন।

২) ২৪ ঘণ্টা ব্রা ও প্যান্টি পরিধান করার কারণে ত্বকে ক্রমাগত ঘর্ষণ হয়। ফলে ত্বকে নানা রকমের র‍্যাশ দেখা দেয়া অতি স্বাভাবিক ঘটনা। এছাড়াও টাইট ব্রা বা প্যান্টি পরিধান করার ফলে ত্বকে পাকাপাকি ভাবে কালো দাগও হয়ে যায়। তাই রাতের বেলা অন্তত ত্বককে আরাম দিন।

৩) রাতের বেলা সবাই কমবেশি ঘামেন, বিশেষ করে স্পর্শ কাতর অঙ্গ গুলো। আর গরমের দিন হলে তো কথাই নেই। দিনে বেলায় আপনি গোসল করে ফেলছেন বা অন্তর্বাস বদলে নিচ্ছেন, কিন্তু রাতের বেলা কমপক্ষে ৮ থেকে ১০ ঘণ্টা একই ঘামে ভেজা অন্তর্বাস শরীরে থাকছে। বলাই বাহুল্য যে এটা থেকে চুলকানি সহ হরেক রকমের ত্বকের অসুখ হওয়া মোটেও বিছিত কিছু নয়।

৪) নারীরা বেশিরভাগ সময়েই এমনভাবে অন্তর্বাস ও পোশাক পরিধান করেন যে গোপন অঙ্গে বাতাস চলাচলের কোন সুযোগ পায় না। ফলে উক্ত স্থানে সর্বদা ঘামে ভেজা কিংবা গুমোট একটি পরিবেশ থাকে, যা যোনির স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক। সর্বদা এমন পরিবেশ থাকার কারণে যোনির পি এইচ ভারসাম্য এলোমেলো হয়ে যায়, ফলে ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়ার বংশ বিস্তার বেড়ে গিয়ে ভালো ব্যাকটেরিয়া কমে যায়। আর এই কারণে হয়ে থাকে Bacterial vaginosis নামক একটি মারাত্মক রোগ। এই রোগের কারণে যোনিতে দুর্গন্ধের মত সাধারণ সমস্যা থেকে শুরু করে সন্তান ধারণে জটিলতার মত মারাত্মক সমস্যাও তৈরি হতে পারে।

৫) গোপন অঙ্গে বিচ্ছিরি দুর্গন্ধ হয়? জেনে রাখুন, আপনার ২৪ ঘণ্টা অন্তর্বাস পরিধান করে থাকাই এর অন্যতম কারণ। অন্তত রাতের বেলা শরীরকে আরাম দিন , অন্তর্বাস খুলে ঘুমান। মনে রাখবেন , গোপন অঙ্গে সর্বদা স্যাঁতসেঁতে পরিবেশকে cervical cancer এরও কারণ মনে করা হয়।

৬) ইস্ট ইনফেকশনের সমস্যায় ভুগছেন? জেনে রাখুন, এটার জন্য আপনার অন্তর্বাসও অনেকটাই দায়ী। সর্বদা অন্তর্বাস পরিধানের কারণে আপনার গোপনঅঙ্গে বাতাস একেবারেই চলাচল করতে পারে না, ফলে সর্বদা সেখানে একটি গুমোট ও আদ্র পরিবেশন থাকে যা ইস্ট ইনফেকশন তৈরি হবার জন্য উপযুক্ত। সাদা স্রাব নির্গত হওয়া, যৌন মিলনে ব্যথা, প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া ইত্যাদি সবই ইস্ট ইনফেকশনের লক্ষণ।

৭) গোপন অঙ্গে, এর আশেপাশে, স্তনের নিচে ইত্যাদি স্থানে খুব চুলকায় বা ব্রণের মত দানা দেখা যায়? এটাও হচ্ছে ২৪ ঘণ্টা অন্তর্বাস পরিধানের কারণেই। তাই রাতের বেলা অন্তর্বাস খুলে রাখুন। শরীরকে পরিষ্কার রাখুন, দিনের বেলা পরিষ্কার অন্তর্বাস ব্যবহার করুন। সমস্ত সমস্যাই দূরীভূত হবে।

এছাড়াও মনে রাখবেন, সিনথেটিক কাপড়ের অন্তর্বাস দিনে রাতে কখনোই নিরাপদ নয়। অন্তর্বাস হবে সুতি কাপড়ে তৈরি ও ঢিলেঢালা, আরামদায়ক। পরিধানে শরীরের যেন কোন কষ্ট না হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *