Home / হাত-পায়ের যত্ন / নখের ভঙ্গুরতা ঠেকাতে কয়েকটি কার্যকরী টিপস

নখের ভঙ্গুরতা ঠেকাতে কয়েকটি কার্যকরী টিপস

আজকাল ফ্যাশন সচেতন অনেক তরুণও নখের মাথা সামান্য বড় রাখতে পছন্দ করেন। নিজেদের সাজকে অনেক বেশি আকর্ষণীয় করে তুলতে পরিচ্ছন্ন নখের আবেদন থাকে সব সময়। তবে কারো কারো নখ একটু বড় হলেই তা ভেঙে যায়। কিন্তু সুন্দর ঝকঝকে নখ সবার পছন্দ। আর হাত-পায়ের দিকে তাকালে প্রথমেই নজর পড়ে নখের দিকে। নখ রাঙিয়ে বা সাজিয়ে আকর্ষণীয় করতে চায় সবাই। এটি নিয়ে সমস্যা নেহাৎ কম নয়। নখের রং বদলে হলদেটে ভাব হওয়া, কখনো বা নখ ভঙ্গুর হয়ে যায়। এসব সমস্যা থেকে রেহাই পেতে ও নখ ভালো রাখতে প্রথমেই দরকার পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা। সেজন্য নিয়মিত হাত-পায়ের যত্ন নিতে হবে। তাহলে জেনে নিন নখের ভঙ্গুরতা ঠেকাতে কিছু কার্যকরী টিপস।

পানিতে এক চা চামচ অলিভ অয়েলের সঙ্গে সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে নখে মাখতে হবে। এ মিশ্রণটি রাতে ঘুমোতে যাবার আগে প্রতিদিন ব্যবহারে আপনার নখ হয়ে উঠবে মজবুত। নখ ভেঙে যাবার হাত থেকে রক্ষা পাবে আর আপনি পাবেন পরিষ্কার স্বাস্থ্যজ্জ্বল নখ।

আধা চামচ লবণ, আধা চামচ লেবু এক কাপ পানিতে মিশিয়ে গরম করে নিন। লবণযুক্ত সেই গরম পানিতে নখ ডুবিয়ে রাখতে হবে ১৫ মিনিট। প্রতি সপ্তাহে একবারই যথেষ্ট। এভাবে চর্চা করে গেলে নখ মজবুত হবে।

নখ কখনো চৌকো করে কাটবেন না। এতে নখ ভাঙে তাড়াতাড়ি। ওভাল করে কেটে ফাইল করে নিলে খোঁচা লাগারও ঝামেলা থাকে না। নখে নিয়ম করে অলিভ অয়েল মাখুন নখ ভাঙা রোধ হবে।

নখ ভীষণ পাতলা? সপ্তাহে একটা করে ক্যালসিয়াম ট্যাবলেট খান। পাতলা নখও শক্ত হয়ে যাবে। নখ পাতলা হোক বা শক্ত ভুলেও ব্লেড চালাবেন না। এতে নখ আঁকাবাঁকা হয়ে ভেঙে যেতে পারে। দাঁত দিয়ে কখনো নখ কাটবেন না। নখের গড়ন খারাপতো হবেই সঙ্গে পেটের সমস্যাও হবে।

নখ শেপ বা ডিজাইন এমনভাবে করুন যেটা আপনার হাতের সঙ্গে মানাবে। কারণ সবার হাতের ধরন এক নয়। এছাড়া নিয়মিত নেলপলিশ পরলে অনেক সময় নখ হলদে হয়ে যায়। এই ছোপ তুলবেন কিভাবে? ঈষদুষ্ণ পানিতে কয়েক ফোঁটা শ্যাম্পু এবং পাতিলেবুর রস মেশান। তাতে মিনিট পাঁচেক আঙুল ডুবিয়ে রাখুন। এরপর ঠান্ডা পানিতে হাত ধুয়ে নিয়ে ময়েশ্চারাইজার মেখে নিন। সপ্তাহে দুদিন করলেই দাগ উধাও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *