Home / ত্বকের যত্ন / উপটান ব্যবহারে উপভোগ করুণ সুন্দর দীপ্তিময় চেহারা

উপটান ব্যবহারে উপভোগ করুণ সুন্দর দীপ্তিময় চেহারা

shajghor_uptan
ত্বকের যত্নে মেয়েরা বহুকাল আগে থেকেই উপটান ব্যবহার করে আসছে। ত্বকের মরা চামড়া দূর করতে আর ত্বক পরিষ্কার করতে উপটানের তুলনা হয় না। কিন্তু বর্তমান বাজারে পাওয়া উপটানগুলো প্রচুর ভেজাল সম্পন্ন হয়। যাতে উপাটানের নাম করে মিশানো থাকে নানান ভেজাল দ্রব্য। তাই ঘরে বসেই উপটান তৈরি করে নেয়া সবচেয়ে উপকারী।

স্বাভাবিক ত্বকের জন্য উপটান :
২ টেবিল চামচ বেসন, ১ টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়ো, ১/২ টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়ো, ২ টেবিল চামচ দুধ উপকরণ গুলো একসাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই মিশ্রণটি দিয়ে প্রতিদিন ফেসওয়াশের মতন মুখ ধুয়ে নিতে হবে। ব্যবহারের ২-৩ দিন পরই আপনার ত্বক দেখাবে উজ্জ্বল আর প্রাণবন্ত। প্যাকটি প্রতিদিন ব্যবহার করে হবে।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য উপটান :
২ টেবিল চামচ বেসন, ১ টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়ো, ১/২ টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ টি কমলার রস অথবা লেবুর রস, ১/২ কাপ দই নিয়ে, সবগুলো উপকরণ মিশাতে হবে। এবার ১৫ মিনিটের জন্য লাগিয়ে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। নিয়মত ব্যবহারে ত্বক হবে সুন্দর, মসৃণ, উজ্জ্বল এবং সেই সাথে ত্বকের অতিরিক্ত তেলও দূর হবে।

শুষ্ক ত্বকের জন্য উপটান :
২ টেবিল চামচ বেসন, ১ টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়ো, ১/২ টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়ো, ২ টেবিল চামচ মধু, ১ টি পাকা কলা একসাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এবার এই উপটানটি আপনার মুখে লাগিয়ে নিন। ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করে স্বাভাবিক মাত্রার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এতে ত্বকের আদ্রতা ও কোমলতা বজায় থাকবে।

সমস্ত শরীরে ব্যবহারের জন্য উপটান :
৩ ১/২ টেবিল চামচ বেসন, ১ চায়ের চামচ হলুদ গুঁড়ো, ২ টেবিল চামচ লেবুর রস, আধা কাপ তরল দুধ একসাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। সাবানের পরিবর্তে এই প্যাকটি প্রতিদিন গোসলে ব্যবহার করুন। ত্বক পরিষ্কারের সাথে সাথে এই উপটানটি আপনার ত্বককে করবে উজ্জ্বল ও দীপ্তিময়।

আপনার ত্বকের ধরন বুঝে উপরের যেকোনো একটি প্যাক ব্যবহার করুন, আর উপভোগ করুন সুন্দর দীপ্তিময় চেহারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *