Home / চুলের যত্ন / খুশকি মুক্ত ঝলমলে চুল পাওয়ার ৬টি ঘরোয়া উপায়

খুশকি মুক্ত ঝলমলে চুল পাওয়ার ৬টি ঘরোয়া উপায়

shajghor_dandruff gorgeous hairশীতকাল। নিঃসন্দেহে ত্বক ও চুলের জন্য মোটেও সুবিধার নয়। শীতকালে চুল হয়ে ওঠে রুক্ষ ও সুক্ষ। উপরন্তু বাড়তি পাওনা খুসকি। তবে আজকাল বাজার ভরে গেছে অ্যান্টি ড্যানড্রাফ শ্যাম্পুতে। কিন্তু এ শ্যাম্পুতে থাকা কেমিক্যাল খুশকি তো তাড়ায় কিন্তু শ্যাম্পু ব্যবহার করা বন্ধ করলে ফিরে আসে খুশকি। তাই চিরতরের জন্য এ খুশকি দূর করতে আপনাদের জন্য রইল সহজ কিছু ঘরোয়া উপায়।

১. ২চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো আর দইয়ের একটি মিশ্রণ বানিয়ে ভালো করে চুলের গোরায় লাগান। এক ঘণ্টা রেখে কোনো মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। খুশকির সমস্যা অনেকটা কমে আসবে।

২. রসুন, যা সহজেই পাওয়া যায়। খুশকি সারানোর জন্য এটা খুবই ভাল। রসুনের পেস্ট বানিয়ে চুলে আধ ঘণ্টা লাগিয়ে রাখুন পরে কোনো মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৩. অলিভ ওয়েল বা তিল তেল সারা রাত চুলে লাগিয়ে সকালে স্নান করার ১ ঘণ্টা আগে চুলের গোরায় লেবুর রস লাগিয়ে কিছুক্ষণ পর ভালো করে চুল ধুয়ে ফেলুন। এতে ভালই ফল পাবেন।

৪. চুলে শ্যাম্পু করার সময় এক চা চামচ বেকিং সোডা ভালো করে শ্যাম্পুর সঙ্গে মিশিয়ে তা দিয়ে চুল ধোবেন। একবার শ্যাম্পু করলেই তফাত বুঝতে পারবেন |

৫. ভিনেগার আর জল সমপরিমাণে মিশিয়ে সারারাত চুলের গোরায় লাগিয়ে রেখে দিন। সকালে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। খুশকি দূর করতে এটা একটা কার্যকর চেষ্টা।

৬. নিম পাতার অনেক রকম অ্যান্টি ব্যায়োটিল, অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টি ফানগাল গুণ আছে, তাই যাদের অনেক খুশকি আছে তারা নিমের পাতা বেটে আধ ঘণ্টা মাথায় লাগিয়ে রাখুন,পরে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুবার লাগান। আর খুশকি থাকবে না।

মডেলঃ নুশরাত শারমিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *