Home / ত্বকের যত্ন / এই রোদে সানস্ক্রিন ছাড়াই ত্বকের সতেজতা ফিরিয়ে আনুন ৫ উপায়ে

এই রোদে সানস্ক্রিন ছাড়াই ত্বকের সতেজতা ফিরিয়ে আনুন ৫ উপায়ে

প্রচণ্ড রোদে বাইরে বের হওয়া মুশকিল। এতে ত্বক পুড়ে গিয়ে কালচে হয়ে যায়। সানস্ক্রিন দিয়ে ত্বকের পুড়ে যাওয়া ভাব না হয় কমাবেন, কিন্তু সানস্ক্রিনের কেমিক্যালসে ত্বকের অভ্যন্তরীন ক্ষতি রোধ করা সম্ভব হয় না। তাই সানস্ক্রিন ছাড়াই কিছু সহজ উপায়ে ত্বকের জেল্লাদার ফিরিয়ে আনুন।



১) সরষের তেলঃ রোদে পুড়ে বাড়ি ফিরলে ত্বকে মখে নিন সরষের তেল। কিছুক্ষণ রেখে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, ট্যান বলে কোনও বস্তুই আর নেই ত্বকে। ২) আলুর রসঃ আলু বেটে সেই রস লাগান ত্বকে। আলুর রস ত্বকের ট্যান তো কমাবেই, এ ছাড়া চামড়ার জেল্লা বাড়াতেও সাহায্য করে আলুর রস।



৩) গোলাপ জলঃ গোসলের সময় জলে কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল মিশিয়ে নিন। গোলাপ জল সানবার্ন কমাতে ওস্তাদ। তবে সব চেয়ে ভাল হয়, যদি বাড়িতেই গোলাপের পাপড়ি বেটে সেই রস ঘষতে পারেন ত্বকে।

৪) অ্যালোভেরা জেলঃ অ্যালোভেরা ত্বকের জন্য খুব উপকারী। পোড়া দাগ তোলায় এর জুড়ি নেই। সরাসরি অ্যালোভেরার জেল লাগান পোড়া ত্বকে। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি মুখ ধুয়ে শশার রস মেখে নিন। খানিক ক্ষণ রেখে আবার ধুয়ে ফেলুন ঠান্ডা পানি। পোড়া দাগের সমস্যা মিটবে সহজেই।



৫) টি ব্যাগঃ কয়েকটি টি ব্যাগ পানি ভিজিয়ে ফ্রিজে রেখে দিন। খানিকক্ষণ বাদে সেই পানি নরম একটা কাপড় ভিজিয়ে নিন। পোড়া ত্বকের উপর সেই বরফশীতল তোয়ালে রাখুন। কমবে পোড়া দাগ।



লবঙ্গঃ
ত্বকের দাগ দূর করে:
নিয়মিত লবঙ্গের তেল দিয়ে ত্বক ম্যাসাজ করুন। তাতে আপনার ত্বকের সব ধরনের দাগ দূর হবে এবং ত্বক নরম ও মসৃণ হবে। তবে ঘুমানোর আগে এই তেল দিয়ে ম্যাসাজ করলে ভালো ফল পাবেন। বলিরেখা দূর করেঃ লবঙ্গের তেলের সাথে যে কোনো এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিয়মিত ত্বকে ম্যাসাজ করুন। এর ফলে ঝুলে যাওয়া ত্বক টানটান হবে এবং ত্বকের বলিরেখা সহজেই দূর হবে।



ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখেঃ ক্রিম বা লোশনের সাথে কয়েক ফোঁটা লবঙ্গের তেল মিশিয়ে নিয়মিত ব্যবহার করুন। এটি আপনার ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করবে। মেকআপের বেইজের জন্য উপকারী: আপনি যদি মেকআপের পর মসৃণ ত্বক চান, তাহলে ফাউন্ডেশনের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লবঙ্গের তেল মিশিয়ে নিন। এটি আপনার ত্বককে তেলতেলে করবে না আবার মসৃণও রাখবে।

সূত্র : আনন্দবাজার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *