Home / ফিটনেস / পেটের মেদ কমানোর ব্যায়াম ৬ ধরণের এক্সসারসাইজ!

পেটের মেদ কমানোর ব্যায়াম ৬ ধরণের এক্সসারসাইজ!

পেটের মেদ ফিটনেসের অন্তরায়, অনেকেরই দেখা যায় শরীরের অন্যান্য অংশের তুলনায় পেট বেশি মেদবহুল হয়। ফিটনেসের পুরো কার্যক্রমটিই তখন ভন্ডুল হয়ে যেতে পারে। আবার অনেক সময় খাদ্য নিয়ন্ত্রণে থাকার পরেও অনেকেরই পেটের মেদ নিয়ন্ত্রণে থাকে না। সেক্ষেত্রে কিছু অনুশীলন রপ্ত করে (পেটের মেদ কমানোর ব্যায়াম) নিয়মিত চর্চা করা উচিত। তবেই হতে পারবেন মেদহীন ফুরফুরে দেহের অধিকারী। এ জন্য ভারী ভারী যন্ত্র কেনার প্রয়োজন নেই; কিছু সহজ যোগাসন কিংবা ফ্রি হ্যান্ড অনুশীলনই পারে আপনাকে কাঙ্খিত ফল দিতে। এখানে সবচেয়ে কম সময় সাপেক্ষ এবং সবার জন্য উপযোগী কিছু অনুশীলন দেয়া হল; যা খুব সহজেই ঘরে বসে চর্চা করে কাঙ্খিত ফল পাওয়া সম্ভব। আসুন জেনে নেই কিভাবে কি করবেন –



০১. পেছনে বাঁকানো
দু পায়ে সোজা হয়ে দাঁড়ান। দুই হাত আঙ্গুলে-আঙ্গুলে এক করে উপরের দিকে নিয়ে যান। এবার শ্বাস নিন, উপরের দিকে ঘাড়সহ পিঠটাকে বাঁকানোর চেষ্টা করুন, বুকের সামনের অংশ উপরে তুলুন এবং এই অবস্থায় কিছুক্ষণ স্থির থাকুন।



০২. সামনে বাঁকানো
হাঁটু নরম রেখে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে সামনের দিকে ঝুঁকে পড়ুন, নাকটাকে হাঁটু বরাবর আনার চেষ্টা করুন। হাতের আঙ্গুল গুলো আগের মত একসাথে করে, দুই হাত সোজা রেখে হাত দুটিকে উপরে উঠান এবং মাথার উপর দিয়ে নেয়ার চেষ্টা করুন।



০৩. চেয়ার
শ্বাস নিন এবং হাঁটু বাঁকা করুন (পিঁড়িতে বসার মত করে)। হাতের আঙ্গুল গুলো খোলা অবস্থায় রেখে সামনের দিকে মেলে ধরুন। আপনার উঁড়ু যখন মেঝের সমান্তরালে তখন হাত দুটিকে কান পর্যন্ত উঠান। সমস্ত ওজন যেন গোড়ালিতে পড়ে সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। নিঃশ্বাস নিতে নিতে উঠে দাঁড়ান এবং দুই হাত দেহের পাশে নিয়ে আসুন। নিঃশ্বাস ছাড়ুন।



০৪. নিম্নগামী মুখ-ভঙ্গী
একসাথে ৪ টাই করুন, হিপ উপরে উঠান এবং হাত ও পা সোজা রাখুন। যেমনটি ছবিতে আছে তেমনি ভাবে চেষ্টা করুন।

০৫. প্ল্যাঙ্ক
হাত সোজা রেখে পুশ-আপ এর মত ভঙ্গিতে নিঃশ্বাস নিন। এবার শ্বাস ছাড়ুন, কনুই বাঁকিয়ে এমন ভাবে আনুন যেন তা আপনার দেহের দিকে থাকে। এবার আস্তে আস্তে সমস্ত শরীর নিচে নামাতে থাকুন যতক্ষণ না বুক মেঝে বরাবর থাকে।



০৬. কোবরা
পায়ের আঙ্গুলগুলো এমন ভাবে উল্টো করে রাখুন যেন কব্জিটি মেঝে স্পর্শ করে। নিঃশ্বাস নিতে নিতে মেঝেতে কনুই চেপে ধরুন, হাত সোজা রাখুন (সামান্য বাঁকানো থাকতে পারে)। এবার আস্তে আস্তে শরীরের উপরের অংশ মেঝে থেকে উপরে উঠাতে থাকুন। এমন ভাবে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে আরামের সাথে শরীরকে মেঝে বরাবর আনুন। আবার শ্বাস গ্রহণ করুন, পায়ের আঙ্গুল বাঁকিয়ে নিচের দিকে নিয়ে হিপের উপর চাপ দিয়ে ৪ নং অনুশীলনটি করুন। শ্বাস ছাড়ুন।

পেটের মেদ কমানোর ব্যায়াম ও উপায়গুলো সহজ হলেও খুবই কার্যকর। এই অনুশীলনগুলো রপ্ত করার মাধ্যমে আপনি অতি সহজেই হতে পারেন আকর্ষণীয় ফিগারের অধিকারী।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *