Home / স্বাস্থ্য-সেবা / অল্প বয়সে ব্রা পরলে ও ঠিকঠাক ভাবে না পরলে মেয়েদের দেহ ও স্তনের কি ক্ষতি হয়? জানুন

অল্প বয়সে ব্রা পরলে ও ঠিকঠাক ভাবে না পরলে মেয়েদের দেহ ও স্তনের কি ক্ষতি হয়? জানুন

কথায় আছে স্বাস্থ্যই সম্পদ। আর এই স্বাস্থ্যের প্রতি যত্ন নেওয়া আমাদের প্রধান কর্তব্য। তবুও নিজের শরীরের কিছু কথা বলতে বিশেষত অনেক মেয়ে অসস্থি বোধ করেন । ফলে অনেক ধারনা অজানা থেকে যায়।যা শরীরের পক্ষে সমস্যা হয়ে দাড়ায়। সেরকম একটি বিষয়ে এই প্রতিবেদন আলোকপাত করবে। বিষয়টি হল মেয়েরা যে অন্তর্বাস পড়ে তা কোন বয়সে পড়া উচিত এবং কীভাবে ব্যবহার করা উচিত।

1. কত বছর বয়স থেকে বক্ষ বন্ধনী ব্যবহার করা উচিত –
মেয়েদের বয়ঃসন্ধি কাল শুরু হয় এগারো -বারো বছর থেকে। তার খানিক আগে থেকেই শরীরে পরিবর্তন দেখা যায় যেমন স্তন বৃদ্ধি পায় শরীর সুডল হয়। এই সময় থেকে ব্রা পরিধান করা উচিত। তবে এ কথা মাথায় রাখা উচিত সকলের শারীরিক বৃদ্ধি একই রকম হয় না।তাই যখন যার প্রয়োজন তখনি বক্ষবন্ধনী পড়া উচিত তার আগে নয়।

2. ব্রা এর মাপ নির্ধারন- সঠিক আকার ও সঠিক সাইজের ব্রা নির্ধারন করা ভীষন প্রয়োজনীয় বিষয় নাহলে পরে শরীরে নানান সমস্যা দেখা দেয়। তাই যে অন্তবাস পরিধান করবেন তার সাইজ সম্পকে অবহিত হন। নিশ্বাস ত্যাগ করুন।ফুসফুস থেকে সমস্ত বাতাস নির্গমন করে দিন। এবার মেঝের সাথে সমান্তরাল করে বক্ষের চারিপাশে ফিতে দিয়ে বক্ষদেশের নীচে অর্থাত যেখানে ব্রা শেষ হয়ে গেছে মেপে নিন। দশমিক সংখ্যা এলে তার কাছাকাছি পূর্ন সংখ্যা ধরে নিন। সেটাই আপনার বক্ষের সাইজ। উদাহরন স্বরূপ 30.5 ইঞ্চি এলে 30 ধরবেন আর 30.6 ইঞ্চি এলে 31 ধরবেন।

3. কাপের সাইজের মাপ নির্ধারন- সোজা হয়ে দাঁড়ান এরপর দুহাত দুদিকে ছেড়ে দিয়ে ব্রা এর সর্বোচ্চ উচু সেখানে মাপ নিন। মাপার সময় ফিতে থাকবে সমান্তরাল অবস্থায়। উদাহরন স্বরূপ 30.5 ইঞ্চি এলে 30 ধরবেন আর 30.6 ইঞ্চি এলে 31 ধরবেন। কাপের সাইজের মাপ থেকে ব্যান্ডের সাইজের মাপ বিয়োগ দিন এই সংখ্যা দিয়ে পেয়ে যাবেন কাপের সাইজ।

3. সাবধানতা- ব্রা কিনতে গেলে শুধু রং বা সুন্দর দেখতে দেখে কেনা উচিত না। কাপড়ের কোয়ালিটি বিচার করুন। কিছু বক্ষবন্ধনীতে বক্ষের আকার সুন্দর দেখানোর জন্য ধাতব পাত বা স্টিল আটকানো থাকে। তাতে অনেকসময় অ্যালার্জী দেখা যায়।।
দেখে নিন ব্রা তে বেশী হূক আছে কীনা।হূকে একাধিক ঘর থাকলে ভালো। বেশী আটোসাটো বক্ষবন্ধনী পরবেন না। শ্বাসকষ্ট দেখা দিতে পারে।বেশী টাইট বক্ষবন্ধনী স্তন ক্যানসারের কারন বলে অনেক বিজ্ঞানীর ধারনা। বেশীদিন ধরে একই ব্রা ব্যবহার করবেন। সপ্তাহে দুদিন একই ব্রা পরলে পরের দিন কেচে দিন।

4. স্তনক্যানসারের আতঙ্ক? অনেকে মুখে প্রচলিত আছে সারাদিন ব্রা পরে থাকলে স্তন ক্যানসার হয়।তবে নিশ্চিত প্রমান বিজ্ঞানীদের কাছে নেই। তবে এটাও ঠিক সারাদিন অন্তর্বাস পরে থাকলে ঘাম জমে অ্যালার্জী ইনফেকশন হতে পারে। ব্রা এর ফিতে টানা বসে থেকে ঘাড়ে ব্যাথা দেখা দিতে পারে।পুশ আপ বক্ষবন্ধনী সারাদিন পরে থাকলে অস্থায়ী ল্যাম্প দেখা দিতে পারে। তবে পরবর্তীতে এ থেকে যে কিছু হবে না তার নিশ্চয়তা কেউ দিতে পারেনা।

5. ঘুমনোর আগে ব্রা খুলে নেওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো কারন- রক্ত চলাচল ব্যহত হয়। ত্বকে দাগ বসে যায়। ঘাড় পিঠে ব্যাথা হয়। চুলকানি থেকে ইনফেকশন হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *