Home / ত্বকের যত্ন / ত্বকের কালো দাগ দূর করার কার্যকরী ৭টি সহজ উপায়!

ত্বকের কালো দাগ দূর করার কার্যকরী ৭টি সহজ উপায়!

ত্বকের দাগ অনেক যন্ত্রণাদায়ক। ত্বকে দাগ থাকলে তা আমাদের আত্মবিশ্বাসের উপর বেশ প্রভাব ফেলে। ত্বকের দাগের কারণে অনেকে নিজেকে আড়ালে লুকিয়ে রাখতে চান। আজকে জেনে নিন এমনই কিছু দাগ দূর করার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াবিহীন দারুণ কার্যকরী কিছু উপায়।

যে কারণে ত্বকে দাগ পরে –
১/ কেটে যাওয়ার পর দাগ ২/ এক্সিডেন্টে তৈরি হওয়া দাগ ৩/ ব্রণের দাগ ৪/ পোড়া দাগ ৫/ কোনো কিছুর কামড়ের দাগ।

দাগ দূর করার উপায়গুলো জেনে নিন –
১. কাঠবাদামের ব্যবহারঃ ৩ টি কাঠবাদাম পুরো রাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। সকালে কাঠবাদামের উপরের বাদামী পাতলা খোসা ছাড়িয়ে পিষে নিন ভালো করে। এরপর এতে গোলাপজল মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করুন। এই পেস্ট নিয়মিত লাগান দাগের উপরে। খুব দ্রুত ফলাফল নজরে পড়বে।

২. বেকিং সোডার ব্যবহারঃ ১ টেবিল চামচ বেকিং সোডায় পরিমাণ মতো পানি মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে ফেলুন। এরপর এই পেস্ট ত্বকের দাগের উপরে লাগিয়ে রাখুন শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই পদ্ধতি সপ্তাহে ৩ দিন ব্যবহারেই দ্রুত দাগের সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন।

৩. মধুর ব্যবহারঃ মধু প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। মধু ত্বকের দাগ দূর করতে বেশ কার্যকর। প্রতিদিন প্রাকৃতিক ভালো মধু ত্বকের দাগের উপরে ভালো করে ম্যাসেজ করুন। তারপর ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। এই কাজটি নিয়মিত করবেন। মধু ব্যবহারের পরপরই ত্বকে কোনো প্রসাধনী ব্যবহার করবেন না। ৩-৪ ঘণ্টা পরে ব্যবহার করুন।

৪. টক-দইয়ের ব্যবহারঃ সমপরিমাণ টকদই, বার্লি ও হলুদগুঁড়ো একসাথে ভালো করে মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে নিন। এই পেস্ট ত্বকের দাগের উপরে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। হলুদ সেই প্রাচীনকাল থেকে ত্বকের দাগ দূর করার কাজে ব্যবহার করা হয়। বেশ ভালো ফলাফল পাবেন। হলুদের দাগ নিয়ে চিন্তা করবেন না। মেকআপ রিমুভার দিয়েই হলুদের হলদেটে দাগ দূর করতে পারবেন।

৫. মধুঃ দাগ দূর করতে মধু অতুলনীয়। এছাড়াও মধু প্রাকৃতিক অ্যান্টিসেপটিক। তাই কাঁটা ছেড়াতেও মধু লাগালে ভালো হয়ে যায়। ব্যবহারঃ ২ টেবিল চামুচ মধুর সাথে ২ টেবিল চামুচ বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন। ৩ মিনিট ম্যাসাজ করুন। একটি টাওয়েল গরম পানিতে ভিজিয়ে মুখের উপর রাখুন। টাওয়েল ঠান্ডা হয়ে গেলে মুখ মুছে ধুয়ে ফেলুন।

৬. অলিভওয়েলঃ অলিভ ওয়েলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই ও কে আছে। এছাড়াও অলিভ ওয়েলের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট দাগকে হালকা করে দেয়। ব্যবহারঃ এক টেবিল চামচ অলিভ ওয়েল নিন। প্রায় ৫ মিনিট ধরে ম্যাসাজ করুন। ১০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৭. শসাঃ রূপচর্চায় শসা ব্যবহার করা খুবই কার্যকরী। শসা বেশ সস্তা এবং সহজলভ্য বলে ব্যবহার করাও বেশ সহজ। এবং শসা ত্বকে কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে না। ব্যবহারঃ শসা ছিলে এর বীজ ফেলে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন।শসার মিশ্রনটি দাগে লাগিয়ে ২০ মিনিট রাখুন। ঠান্ডা পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফল পেতে প্রতিদিন ব্যবহার করুন।

সূত্রঃ হেলথডাইজেস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *