Home / ফিটনেস / মাত্র ১২ দিনে ওজন কমানোর সঠিক ডায়েট চার্ট দেখে নিন!

মাত্র ১২ দিনে ওজন কমানোর সঠিক ডায়েট চার্ট দেখে নিন!

ওজন কমানোর জন্য সঠিক ডায়েটের খোঁজ করেন অনেকেই। ডায়েট করতে গিয়ে অনেকে খাওয়া দাওয়াও ছেড়ে দেন। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন ওজন কমাতে গেলে ৭০ শতাংশ ডায়েটের সঙ্গে ৩০ শতাংশ এক্সারসাইজ থাকতে হবে। তাই সঠিক ডায়েট নির্বাচন জরুরি। জেনে নিন পাঁচ থেকে ছয় সপ্তাহের মধ্যে তিন থেকে পাঁচ কেজি ওজন কমানোর ডায়েট। এই ডায়েট চার্ট দিয়েছেন ভারতের গুরুপ্রসাদ বন্দোপাধ্যায়।

ঘুম থেকে উঠেই এক গ্লাস উষ্ণ গরম পানি খেতে হবে। এতে আমাদের শরীর থেকে টক্সিন বা বিষ পরিষ্কার হয়ে যায়। যার ফলে ত্বক ভাল থাকে, হজম ক্ষমতা বাড়ে, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়।

সকালের খাবারঃ নয়টার মধ্যে করতে হবে। কোনওদিন সুজি, চিড়ার পোহা, রুটি সবজি, খিচুড়ি খাওয়া যায়। ব্রেকফাস্ট ও লাঞ্চের মাঝখানে একটা বড় শশা খেলে ভাল হয়। কারণ শশা খিদে কমাতে সাহায্য করে। এই শশা লাঞ্চের মোটামুটি এক ঘণ্টা আগে খাওয়া উচিত। দুপুর একটা নাগাদ লাঞ্চ করবে।

দুপুরের খাবারঃ এক কাপ ভাত, তরকারি, ডাল (যার মধ্যে সব রকমের সবজি থাকবে, যেমন মটর, গাজর, টমেটো, কাঁচা পেঁপে ইত্যাদি)। এর সঙ্গে একটু টক দই। লাঞ্চে একদিন ভাত খেলে তার পরের দিন ফ্রুট লাঞ্চ। আপেল, পেয়ারা, শশা, পাকা পেঁপে, বাতাবি লেবু, কালো জাম, জামরুল এবং দই খাওয়া যায়। এর সঙ্গে একটা কি দুটো সেদ্ধ ডিমের সাদা অংশটি খাওয়া যেতে পারে।

বিকেলের স্ন্যাক্সঃ বাড়িতে থাকলে চারটে থেকে পাঁচটার মধ্যে এক কাপ লিকার চা, দুধ চা, লেবু চা খাওয়া যায়। এক কাপ স্কিমড মিল্ক ও তার সঙ্গে দুটো বিস্কুট খাওয়া যেতে পারে। বিকেলে বাইরে থাকলে শুকনো খাবার যেমন চিড়া, মুড়ি, বাদাম খাওয়া যাবে। তেলে ভাজা খাবার এড়িয়ে চলতে হবে।

রাতের খাবারঃ রাতের খাবারে দুটো রুটি, তরকারি, ডাল এবং তার সঙ্গে মাংস খাওয়া যাবে। এর সঙ্গে সালাদ থাকতে পারে। একদিন যদি ডিনারে রুটি-তরকারি খেলে, পরের দিন ডিনারে চিকেন স্যুপ (সব রকমের সবজি দিয়ে) খাওয়া যায়। এর সঙ্গে সালাদ কিংবা রায়তা খেতে হবে।

বিশেষজ্ঞদের মতে কখনওই ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ, টিফিন, ডিনার স্কিপ করা উচিত না। না খেলেই যে ওজন কমে যায় এই ধারণাটা ভুল। বরং হিতে-বিপরীতও হতে পারে।

তথ্যসুত্রঃ ইন্টারনেট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *