Home / ত্বকের যত্ন / ফর্সা ত্বক পেতে ঘরে তৈরি ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন!

ফর্সা ত্বক পেতে ঘরে তৈরি ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন!

সুস্থ, সুন্দর ও উজ্জ্বল ত্বক পেতে মানুষ কত কিছুই না করে। কখনও পার্লার, আবার কখনও দৌড়ায় ডাক্তারের কাছে। কিন্তু অনেক সময় পার্লারে কিংবা ডাক্তারের কাছে যেতেও ইচ্ছা করে না। সেক্ষেত্রে বাড়িতে বসেই হাতের কাছের সব জিনিস দিয়ে আপনি তৈরি করতে পারেন ফেসপ্যাক।

এলোভেরা জেল: অতি প্রাচীনকাল থেকেই এটি ভেষজ উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এরপর এর ভেতরের জেল নিয়ে মুখের দাগগুলোতে লাগিয়ে রাখুন। সকালে যে কোনো ফেসওয়াস দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এভাবে দুই থেকে তিনমাস নিয়মিতই ব্যবহার করুন। দেখবেন আপনার ত্বক হয়ে উঠবে দাগহীন ও সুন্দর। এছাড়াও এটি বিষাক্ত পোকামাকড়ের কামড় থেকেও আপনাকে বাঁচাবে।

কাঁচা পেপের প্যাক: প্রথমে কাঁচা পেপে সংগ্রহ করে এটি পিষে নিন। তারপর এটি মাস্ক হিসেবেই মুখে ব্যবহার করুন। এভাবে দুই থেকে তিন মাস নিয়মিতই লাগান। তাহলেই দাগ চলে গিয়ে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে আরও সুন্দর।

শসার রস ও গোলাপ জলের প্যাক: প্রথমে কিছু গোলাপ জল নিন। এরপর এতে শসার রস ও লেবুর রস মেশান। ভালোভাবে পেস্ট তৈরি করে তা দিনে একবার লাগান। এভাবে কিছুদিন ব্যবহার করুন। দেখবেন আপনার ত্বক হয়েছে আরও উজ্জ্বল, আরও সুন্দর। অল্প পরিশ্রম ও অল্প আয়াসেই তৈরিকৃত প্যাকগুলোই আপনার শুধু সময় বাঁচাবে না, ত্বকও ভালো রাখবে।

আরো পড়ুন, উজ্জ্বল ত্বকের জন্য স্ক্রাব
ঘরে তৈরি স্ক্রাব রাসায়নিক উপাদান মুক্ত এবং এগুলো ত্বক উজ্জ্বল ও আর্দ্র রাখতে সাহায্য করে।

রূপচর্চাবিষয়ক একটি ওয়েবসাইট থেকে হাতের কাছে পাওয়া যায় এমন রান্নাঘরের সামগ্রী থেকে স্ক্রাব তৈরির উপায় সম্পর্কে জানা যায়। সাধারণ চিনির তৈরি স্ক্রাব: স্ক্রাব তৈরির এটাই সবচেয়ে ভালো উপায়। ত্বক এক্সফলিয়েট করতে সাহায্য করে চিনি। অন্যদিকে ত্বক আর্দ্র রাখার জন্য নানা ধরনের প্রাকৃতিক তেল যেমন, জলপাই তেল, নারিকেল তেল বা জোজোবা তেল ব্যবহার করতে পারেন।

এক কাপ সাদা অথবা বাদামি চিনির সঙ্গে পছন্দের যে কোনো তেল মিশিয়ে এই স্ক্রাব তৈরি করা যায়। গোসলের আগে এই সাধারণ স্ক্রাব ব্যবহার করে কোমল ও উজ্জ্বল ত্বক পাওয়া সম্ভব।

নারিকেল তেল, লাল চিনি এবং ভ্যানিলার তৈরি স্ক্রাব: ভ্যানিলা স্ক্রাবে সুগন্ধি যোগ করে। এক কাপ বাদামি চিনি, এক কাপ নারিকেল তেল এবং আধা চা-চামচ ভ্যানিলা এক্সট্রাক্ট বা নির্যাস ভালো মতো মিশিয়ে দ্রবণ তৈরি করতে হবে। এই স্ক্রাব ত্বকে চক্রারার ভাবে ঘষে লাগাতে হবে ও পরে তা ধুয়ে ফেলতে হবে।

লবণ, চিনির স্ক্রাব: লবণ এবং চিনি দুটোরই রয়েছে এক্সফলিয়েট করার ভালো গুণ। প্রাকৃতিক তেলের সঙ্গে মিশিয়ে এই স্ক্রাব ব্যবহার করলে বেশ উপকার পাওয়া যায়। আধা কাপ সামদ্রিক লবণ, আধা কাপ বাদামি চিনি এবং আধা কাপ নারিকেল বা জলপাইয়ের তেল ভালোভাবে মিশিয়ে একটি স্ক্রাব তৈরি করতে হবে। এই স্ক্রাব ত্বকে জাদুর মতো কাজ করে।

গ্রিনটি স্ক্রাব: গ্রিন টি’তে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে।

আধা কাপ গরম পানিতে দুইটি গ্রিনটি ব্যাগ ভিজিয়ে যতক্ষণ সম্ভব অপেক্ষা করুন। ঠাণ্ডা হলে এক কাপ চিনি ও তিন টেবিল-চামচ জলপাইয়ের তেল মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি একটি পাত্রে সংরক্ষণ করুন। এই মিশ্রণটি ত্বক ভালো রাখতে সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *