Home / ত্বকের যত্ন / মাত্র ১ সপ্তাহে ত্বকের যেকোন কালো দাগ ভ্যানিশ করুন

মাত্র ১ সপ্তাহে ত্বকের যেকোন কালো দাগ ভ্যানিশ করুন

ভাবুন তো, সন্ধের বিয়েবাড়ি বা পার্টির জন্য মেকআপ করতে বসেছেন ফুরফুরে মেজাজে। এদিকে গুচ্ছ ফাউন্ডেশন আর কন্সিলার লাগিয়েও গালের কালো দাগটা গায়েব করাই গেল না। বা সেলফি তুললেন বন্ধুদের সাথে, আপনার ত্বকের কালো দাগে সেলফিটাই এক্কেবারে যা তা হয়ে গেল! মুডটাই তো তখন অফ হয়ে যায়। চিন্তা করবেন না, চাপও নেবেন না। আপনার ত্বকের কালো দাগকে পার্মানেন্টলি ভ্যানিশ করার জন্য ৪ টে স্পেশাল ঘরোয়া উপায় নিয়ে আমরা এবার হাজির। ত্বকে কালো দাগ কেন হয়?

কালো দাগ কিন্তু নানা কারণেই হতে পারে। বয়সের জন্য তো হয়ই, তাছাড়া সান ট্যান, হরমোনের নানা রকম সমস্যা, মুখে ওয়াক্স করা, ব্রণর দাগ—ইত্যাদি থেকেও ত্বকে বিচ্ছিরি কালো দাগ হতেই পারে। আর দাগ যখন আছে, দাগকে তো তাড়াতেই হবে। তাই কালো দাগ তাড়াতে ঝটপট পড়ে ফেলুন আজকের আর্টিকল।

১. লেবুর রস
যেকোনো রকমের কালো দাগ তাড়াতে চান? তাহলে চোখ বুজে ব্যবহার করুন লেবুকে। আপনার ত্বকের দাগ যত জেদি আর পুরোনোই হোক না কেন, লেবুতে থাকা সাইট্রিক অ্যাসিড আর ভিটামিন সি পারফেক্ট ব্লিচিং এজেন্টের মতো তাকে এক সপ্তাহে তাড়াবেই।

উপকরণঃ লেবুর রস ১ টা গোটা, টক দই ১ চামচ।

পদ্ধতিঃ লেবুর রস আর টক দই একসাথে মিশিয়ে আপনার গোটা মুখে লাগিয়ে নিন। আধঘণ্টা মতো রেখে হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন। একদিন ছাড়া একদিন করবেন। তবে হ্যাঁ, লেবুর রসে যেহেতু অ্যাসিড থাকে, তাই আপনার স্কিন যদি অতিরিক্ত সেনসিটিভ হয়, তাহলে ব্যবহার না করাই ভালো। ওতে কিন্তু উলটো ফল হতে পারে। আর লেবুর রস মেখে রোদে খবরদার যাবেন না, ত্বক পুড়ে কিন্তু ত্বকের বারোটা বেজে যাবে।

২. আলু
জেদি দাগ কিছুতেই যাচ্ছে না? তাহলে ব্যবহার করুন আলুকে। আলুর প্রাকৃতিক ব্লিচিং প্রপার্টি ত্বকের যেকোনো রকম দাগ হালকা করতে পারে। আর আলুতে থাকা স্টার্চ পিগমেন্টেশন দূর করে ত্বককে হেলদি রাখে।

উপকরণঃ আলুর টুকরো ২ টি।

পদ্ধতিঃ আলুর টুকরো অল্প জল দিয়ে ভিজিয়ে আপনার ত্বকের কালো দাগের জায়গায় রাখুন। এভাবে ১০-১৫ মিনিট রেখে হালকা গরম জলে মুখ ধুয়ে নিন। এটা কিন্তু আপনি রোজই নিয়ম করে করবেন, তবেই উপকার পাবেন।

৩. অ্যালোভেরা
ত্বক আর চুলের নানা যত্নে অ্যালোভেরা কিন্তু অল টাইম মাস্ট। আমাদের শরীরে থাকা প্রায় ৯০% অ্যামাইনো অ্যাসিড অ্যালোভেরাতে থাকে। তাছাড়া ভিটামিন এ, বি, সি, বিটা-ক্যারোটিন ইত্যাদি ত্বকের বয়স দূর করা থেকে শুরু করে ত্বককে হেলদি করে তুলতেও সাহায্য করে। তাই আপনার ডেলি বিউটি রুটিনে এই মিরাকল প্ল্যান্টকে ব্যবহার করুন।

উপকরণঃ ফ্রেশ অ্যালোভেরা জেল ২ চামচ।

পদ্ধতিঃ অ্যালোভেরা পাতা থেকে রস বের করে ওটা আপনার মুখে বা যেকোনো দাগের জায়গায় সরাসরি লাগান। ২০ মিনিট মতো রেখে ধুয়ে ফেলুন। দিনে বার দুয়েক নিশ্চিন্তে লাগাতে পারেন। আর ইচ্ছে হলে রাতে লাগিয়ে শুয়ে পড়ুন। আরও ভালো ফল পাবেন।

৪. ওটমিল বা ওটস
লিস্টে ওটসকে দেখে আপনি নিশ্চয়ই অবাক হচ্ছেন? খেতে যত ভালোই হোক না কেন, কালো দাগকে তাড়াতাড়ি দূর করতে ওটস কিন্তু একদম পারফেক্ট। আপনার ঘরোয়া স্ক্রাবে ওটস ব্যবহার করুন। দেখবেন মরা চামড়া, ব্রণর দাগ সব কিছু কি তাড়াতাড়ি ভ্যানিশ হয়ে যাচ্ছে। তাছাড়া আপনার ত্বকের অয়েল কন্টেন্টকেও ওটস খুব ভালো ভাবে ব্যালেন্স করতে পারে।

উপকরণঃ ওটস ৩ চামচ ভালো করে গুঁড়ো করা, মধু ১ চামচ, দুধ ১ চামচ।

পদ্ধতিঃ একটা বাটিতে মধু, দুধ আর গুঁড়ো করা ওটস ভালো করে মিশিয়ে আপনার মুখে মেখে ভালো করে মেখে নিন। যখন পুরোপুরি শুকিয়ে যাবে, তখন হালকা জল দিয়ে স্ক্রাব করে তুলে ফেলুন। একদিন ছাড়া একদিন এই স্ক্রাব ব্যবহার করেই দেখুন না। উপকার পেতে বাধ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *