Home / ত্বকের যত্ন / বিয়ের পরেও সৌন্দর্য ধরে রাখার গোপন রহস্য জেনে নিন!

বিয়ের পরেও সৌন্দর্য ধরে রাখার গোপন রহস্য জেনে নিন!

বিয়ের আগে বেশির ভাগ নারীরা নিজের সৌন্দর্যের প্রতি খুবই সচেতন থাকেন। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় বিয়ের পরে সংসার ও সন্তান লালন-পালন করতে গিয়ে নিজের প্রতি যত্ন নিতে পারেন না। এ জন্য অনেকের ওজন বেড়ে যায়। এছাড়া চেহারায় বয়সের ছাপ পড়ে। মনে রাখবেন মানুষ সুন্দরের পূজারি। তাই বিয়ের আগে ও পরে একজন নারীর সুন্দর থাকা জরুরি। প্রতিটি সুন্দরী নারীর জানা প্রয়োজন তার সৌন্দর্য ধরে রাখার গোপন রহস্য। আসুন জেনে নেই একজন নারী বিয়ের আগে ও পরে কীভাবে সৌন্দর্য ধরে রাখবেন।

গ্রিন-টি
অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ গ্রিন-টি বলিরেখা দূর করে, ব্রণ দূর করতে কাজে দেয়। ১ চা চামচ মধু ও গ্রিন-টি লিকার একসঙ্গে মেশান। মিশ্রণে ১ চা চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। ২০ মিনিট পর ধুয়ে নিন।

নারিকেল তেল
নারিকেল তেল দিয়ে ১০ মিনিট চুল ম্যাসাজ করে গোসল করে ফেলুন। এতে চুল মসৃণ এবং উজ্জ্বল থাকবে। পেট্রোলিয়াম জেলিঃ ঝটপট ভ্রু সেট করার জন্য সামান্য একটু পেট্রোলিয়াম জেলি ভ্রুতে লাগিয়ে মাসকারা ব্রাশ দিয়ে আঁচড়ে নিন। ভ্রু সেট হবে মাত্র কয়েক সেকেন্ডে।

বাদামের তেল ও পানি
লিপস্টিক তুলতে তুলার বলে বাদামের তেল মেখে ঠোঁটে ঘষে নিন। এটি শুষ্কভাব দূর করে ঠোঁট মসৃণ রাখবে। পানিঃ পরিষ্কার থাকার বিকল্প নেই। দিনে কমপক্ষে ২ বার ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করুন। এতে ময়লা পরিস্কার হয়ে যাবে এবং ত্বক ফ্রেশ দেখাবে।

ওজন নিয়ন্ত্রণ
একজন নারীর সৌন্দর্য ধরে রাখাতে অবশ্যই এজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। কারণ বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা বিয়ের পরে নারীরা সন্তান জন্মের পরে ওজন বেড়ে যায়। তাই গর্ভাবস্থায় ব্যায়াম করতে না পারলেও সন্তান হওয়ার ভূমিষ্ঠ হওয়ার পরে ব্যায়াম করে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন।

জন্মনিয়ন্ত্রণ
জন্মনিয়ন্ত্রণ পিল ও খাদ্যাভ্যাস নিয়ন্ত্রণ না করার ফলে মুটিয়ে যান অনেক নারী। তাই বিয়ের পরে খাদ্যাভ্যাস ও জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতির জন্য ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন। এতে আপনার দৈহিক সৌন্দর্য বজায় খাকবে। মেকআপঃ মেকআপ প্রোডাক্ট কেনার সময় অবশ্যই ভালোমানের পণ্য কিনতে হবে। ত্বকের সঙ্গে মানিয়ে যায়, এমন প্রোডাক্ট নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *