Home / ফিটনেস / চড়চড় করে বাড়ছে ওজন? এই শরবতটি দিনে দু’বার খেলে ঝট করে ওজন কমে যাবে

চড়চড় করে বাড়ছে ওজন? এই শরবতটি দিনে দু’বার খেলে ঝট করে ওজন কমে যাবে

সময় নেই। এনার্জি নেই। তাই চড়চড় করে বাড়ছে ওজন। এমন সময় কোনও ফুশমন্তরেই কমবে না শরীরের বাড়ন্ত মেদ। কিন্তু উপায় তো একটা চাই-ই চাই। যেনতেন প্রকারেণ ঝরাতেই হবে ওয়েট। তাই বিনা মেহনতেই কমিয়ে নিন ওজন। জাস্ট এক গ্লাস শরবত ধকধক করে খেয়ে নিন। তারপর দেখুন কামাল। কী সেই শরবত?

সে এক জাদুর রস। সকালে ঘুম ঘুম চোখেই বানিয়ে ফেলতে পারবেন। তার জন্য চাই –

পদ্ধতি ১ঃ ছোটো ২/৩ কাপ হালকা গরম জল, ১ চা চামচ মধু, ১ চামচ আদা কুচি, ১ চা চামচ দারুচিনি, ১ চামচ পাতি লেবুর রস।

কিন্তু মনে রাখবেন সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে খাবেন। তারপর খুব খিদে পাবে। তাই বলে অনেক পরিমাণে ব্রেকফাস্ট করবেন না। পর্যাপ্ত পরিমাণ খাবার খাবেন। ভুলেও ডায়েটিংয়ের কথা মাথায় আনবেন না। মনে রাখবেন, ডায়েটিং করে রোগা হওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকারক। তাতে তেমন কাজও হয় না।

এই শরবতটি দিনে দু-বার খান। একবার সকালে খালি পেটে। আরেকবার রাতে শুতে যাওয়ার আগে। হজমশক্তি বাড়বে। বাড়তি মেদ ঝরাতে সাহায্য করবে। ট্রাই করে দেখুন !

পদ্ধতি ২ঃ আধ টেবিল চামচ কারি পাতা বাটা, আধ টেব্ল চামচ পাতিলেবুর রস, আধ টেবিল চামচ মধু।

কী করবেন – সব উপকরণ হালকা গরম জলের সঙ্গে মিশিয়ে রোজ সকালে খালি পেটে খেতে হবে। টানা তিনমাস এই অভ্যেস করলে আপনি ফ্যাট টু ফিট হবেন নিশ্চিত।

এই সব ড্রিঙ্কগুলো শরীরকে ডিটক্স করতে সাহায্য করে। তাই ওজন কমানোর পাশাপাশি কোনও ড্রিঙ্ক ব্লাড সুগার লেভেল কমায় তো আবার কোনওটা কোলেস্ট্রল। তাই ফিট চেহারার সঙ্গে পেয়ে যাবে ফিটম ফিট স্বাস্থ্য একদম ফ্রি ফ্রি ফ্রি!

পদ্ধতি ৩ঃ ১/৪ চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো, তিন টেবিল চামচ পাতিলেবুর রস আর এক টেবিল চামচ মধু।

কী করবেন – সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে ড্রিঙ্কটা তৈরি করে রেখে দাও। এক থেকে দু’মাস দিনে দু’বার করে নিয়মিত এই ড্রিঙ্ক খেলে ওজন কমতে বাধ্য। বিশেষ করে তোমার প্রধান শত্রু যদি হয় পেটের মেদ।

লেখাটি পছন্দ হইলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।
নিয়মিত সুন্দর সুন্দর টিপস পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ অ্যাক্টিভ থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *